বাংলা নিউজ > ময়দান > ISL 2020-21: '১২ জন প্রতিপক্ষ' মন্তব্যের পর রেফারিং নিয়ে ফেডারেশনে অভিযোগ এসসি ইস্টবেঙ্গলের
রেফারিংয়ের মান নিয়ে এআইআইএফের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)
রেফারিংয়ের মান নিয়ে এআইআইএফের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য এএনআই)

ISL 2020-21: '১২ জন প্রতিপক্ষ' মন্তব্যের পর রেফারিং নিয়ে ফেডারেশনে অভিযোগ এসসি ইস্টবেঙ্গলের

  • ফাওলার তোপ দেগেছিলেন, প্রতি ম্যাচে তাঁদের ১২ জনের বিরুদ্ধে খেলতে হচ্ছে।

শুভব্রত মুখার্জি

জামশেদপুর এফসির সঙ্গে ড্র করে আইএসএলে অভিষেক মরশুমে প্রথম পয়েন্ট পেয়েছে রবি ফাওলার বাহিনী। তবে এখানেই থেমে থাকতে রাজি নন কিংবদন্তি কোচ। প্রথম তিন ম্যাচে হারের পরেও চতুর্থ ম্যাচে তারা যে ফুটবলটা খেলেছেন, তাতে তাঁদের জেতা উচিত ছিল বলেই তাঁর অভিমত। আইএসএলে শেষ ম্যাচে দীর্ঘ সময় ১০ জনে খেলতে হয়েছে এসসি ইস্টবেঙ্গলকে। তারপরেও জামশেদপুরের আক্রমণভাগকে লাল-হলুদ ডিফেন্ডাররা, যেভাবে আটকে দিয়েছেন তা তারিফযোগ্য‌।

ম্যাচ শেষে এসসি ইস্টবেঙ্গল কোচ রবি ফাওলার দলের ফুটবলারদের মানসিকতার ভূয়সী প্রশংসা করেন। কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে বহিঃপ্রকাশ ঘটে ক্ষোভের। তাঁর অভিযোগ, রীতিমতো গুরুতর। তাঁর মতে, ভারতের এক নম্বর লিগের সব ম্যাচই তাঁদের খেলতে হচ্ছে ১২ জনের বিরুদ্ধে। বিপক্ষের ১১ জন ফুটবলার এবং একজন রেফারি সবসময় তাঁদের বিরুদ্ধে খেলে চলেছেন। তিনি বলেন, 'সব সিদ্ধান্তই আমাদের বিপক্ষে যাচ্ছে। যেসব সিদ্ধান্ত আমাদের বিরুদ্ধে যাচ্ছে তা দুর্ভাগ্যজনক এবং তা গোটা ম্যাচের রংটাই বদলে দিচ্ছে।'

প্রসঙ্গত এবারের আইএসএলে বারবার বিদ্ধ হয়েছে রেফারিং সিদ্ধান্ত। একাধিক প্রশ্ন উঠে গিয়েছে ইতিমধ্যেই। এসসি ইস্টবেঙ্গলের শেষ দুই ম্যাচে রেফারিং ছিল অত্যন্ত দৃষ্টিকটু। একাধিক সিদ্ধান্ত গিয়েছে লাল-হলুদের বিপক্ষে। নিশ্চিত পেনাল্টি পায়নি তারা। জামশেদপুর ম্যাচে লিংডোকে বিতর্কিত লালকার্ড দেখানো হয়েছে। ফলে প্রস্তুতির অভাবে চাপে থাকা ইস্টবেঙ্গল বারবার পড়েছে বাড়তি চাপে। এ ব্যাপারে ফাওলার বলছেন 'কোনও প্রি-সিজন ট্রেনিংয়ের সুযোগ পায়নি। প্রস্তুতিতে আমরা অনেকটা পিছিয়ে। সেই সঙ্গে মনে হচ্ছে সবকটি ম্যাচেই আমাদের খেলতে হচ্ছে ১২ জনের বিরুদ্ধে।'

তারইমধ্যে রেফারিংয়ের মান নিয়ে এআইআইএফের কাছে অভিযোগ দায়ের করেছে এসসি ইস্টবেঙ্গল। এক ক্লাবকর্তা বলেন, 'ক্লাবের তরফে এআইএফএফকে আমাদের মতামত জানিয়েছে। বাকি টুর্নামেন্টে খেলার ছন্দ বজায় রাখার স্বার্থে রেফারিংয়ের মান বাড়ানোর বিষয়টি ভাবনাচিন্তা করে দেখবে।'

বন্ধ করুন