বাংলা নিউজ > ময়দান > ISL 2020: জার্সিতে ATK-র তিন ISL জয়ের প্রতীক কেন? 'স্টার' হটাও অভিযানে বাগান সমর্থকরা
জার্সিতে ATK-র তিন ISL জয়ের প্রতীক কেন? 'স্টার' হটাও অভিযানে বাগান সমর্থকরা (ছবি সৌজন্য ফেসবুক)
জার্সিতে ATK-র তিন ISL জয়ের প্রতীক কেন? 'স্টার' হটাও অভিযানে বাগান সমর্থকরা (ছবি সৌজন্য ফেসবুক)

ISL 2020: জার্সিতে ATK-র তিন ISL জয়ের প্রতীক কেন? 'স্টার' হটাও অভিযানে বাগান সমর্থকরা

  • তাঁদের দাবি, নয়া ক্লাবের নামের সামনে থেকে এটিকে সরিয়ে দিতে হবে।

তিনবার আইএসএল জিতেছে এটিকে। কিন্তু এটিকে-মোহনবাগানের জার্সিতে কেন তিনটি স্টার রাখা হবে? সেই ‘ক্ষোভ’ নিয়ে এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো প্রচার শুরু করল মোহনবাগানের সমর্থকদের একাংশ।

এমনিতেই মোহনবাগানের আগে এটিকে জুড়ে যাওয়ায় প্রথম থেকেই বাগান সমর্থকদের একটি অংশ ক্ষুব্ধ হয়ে আছে। তাঁদের দাবি, নয়া ক্লাবের নামের সামনে থেকে এটিকে সরিয়ে দিতে হবে। অথচ এটিকে-মোহনবাগানে গঙ্গাপারের ক্লাবের মাত্র ২০ শতাংশ শেয়ার আছে। সেই দাবি নিয়ে অনেকদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার চালাচ্ছেন বাগানের সমর্থকরা। তা নিয়ে এসসি ইস্টবেঙ্গল-সহ একাধিক আইএসএল দলের সমর্থকরা বিদ্রূপের মুখে পড়তে হয়েছে। রীতিমতো কথার লড়াই চলছে।

তারমধ্যেই গত কয়েকদিনে আবার নতুন করে #Remove3star (এটিকের তিন আইএসএল জয়ের স্টার বাদ দেওয়া) হ্যাশট্যাগ দিয়ে ‘প্রতিবাদে’ নেমেছেন বাগান সমর্থকদের একাংশ। শুধু তাই নয়, #JoyMohunBagan (জয় মোহনবাগান) #OnlyMohunBagan (শুধু মোহনবাগান) এবং #RemoveChampions2019-20 (২০১৯-২০ সালের চ্যাম্পিয়ন তকমা সরিয়ে দেওয়া) হ্যাশট্যাগও ছেয়ে গিয়েছে বাগান সমর্থকদের কয়েকটি পেজে। তবে একটি পেজের পোস্টে আবার আপাতত #Remove3star-কেই হাতিয়ার করতে বলা হয়েছে। তাতে লেখা হয়েছে, 'আগে #Remove3starটা দেখা হোক। পরে #RemoveATK টা পরে দেখছি।'

আপাতত এটিকে-মোহনবাগানের যে জার্সি সামনে আনা হয়েছে, অনুশীলনে যে জার্সি করা হচ্ছে, তার কোনওটাতেই অবশ্য তিনটি স্টার নেই। শুধুমাত্র দলের লোগো আছে। আইএসএলের ফেসবুক ও টুইটার পেজে সব দলের যে লোগো আছে, তাতেও এটিকে-মোহনবাগানের তিনটি স্টার নেই। শুধুমাত্র আইএসএলের যে লোগা আছে, তাতে তিনটি স্টার দেওয়া আছে। তাতেই ক্ষোভে ফুঁসছেন বাগান সমর্থকরা।

কেন সেই দাবি করা হচ্ছে, তাও একটি কমেন্টে ‘বোঝানো’ হয়েছে। পেজের তরফে একটি কমেন্ট বক্সে লেখা হয়েছে, 'এটিকে কী জিনিস? খায় না মাথায় মাখে? এটিকের প্রোডাক্ট কী? ফুটবল দল ছিল, উঠে গিয়েছে, তার ব্র্যান্ড ভ্যালু কী? তার রেজিস্ট্রেশন বাতিল হয়েছে, তাহলে তার অস্তিত্ব কী? মোহনবাগান উঠে যায়নি, রেজিস্ট্রেশনও বাতিল হয়নি। সুতরাং মৃত ব্র্যান্ডের নাম বয়ে বেড়ানোর যুক্তি নেই।' সেই যুক্তিতে অবশ্য অনেক বাগান সমর্থক আপত্তি তুলেছেন। তাঁদের বক্তব্য, এটিকে-মোহনবাগানে তো এটিকের ৮০ শতাংশ শেয়ার আছে। ক্লাবের বোর্ডেও এটিকের প্রতিনিধির সংখ্যা বেশি। ফলে আদতে এটিকের জোর থাকছে। এক প্রবীণ বাগান সমর্থক চাঁচাছোলো ভাষায় বলেন, 'এটিকে যত টাকা ইনভেষ্টমেন্ট করেছে সেই টাকাটা ফিরিয়ে দিয়ে এসব বড় বড় কথা বললে ভালো হয়।'

তাতেও অবশ্য অনড় সমর্থকদের একাংশ। কেন স্পনসর না এনে সংযুক্তিকরণ করা হল, তা নিয়েও বাগানের ক্লাবকর্তাদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে। এক প্রবীণ বাগান সমর্থকের থেকে ‘ফেসবুক বিপ্লবী’ কটাক্ষ শোনার পর এক ব্যক্তি বলেন, ‘আজকে দালাল বেশি যেদিন আমাদের সব সমর্থক জাগবে সেদিন আপনাদের মতো দালাল আর এই নির্লজ্জ স্বার্থান্বেষী ম্যানেজমেন্ট কোথায় পালাবেন ভেবে রাখুন।’

আর বাগান সমর্থকদের সেই যুক্তি-পালটা যুক্তি নিয়ে রীতিমতো ট্রোল শুরু করেছেন এসসি ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা। বাদ যাচ্ছেন না অন্য দলের সমর্থকরাও। একটি ট্রোল পেজে তো আবার সেই #Remove3star-কে কটাক্ষ করে লেখা হয়েছে, ‘আমাদের ২৫২ টি স্টার যোগ করুন এবং সেটাকে সৌরজগত বানিয়ে ফেলুন।’

বন্ধ করুন