বাংলা নিউজ > ময়দান > WTC ট্রফির ওজনটা আন্দাজই করতে পারেননি, এর ভার এখন বড় বেশি মনে হচ্ছে উইলিয়ামসনের
ট্রফি হাতে কেন উইলিয়ামসন ব্রিগেড। ছবি: রয়টার্স
ট্রফি হাতে কেন উইলিয়ামসন ব্রিগেড। ছবি: রয়টার্স

WTC ট্রফির ওজনটা আন্দাজই করতে পারেননি, এর ভার এখন বড় বেশি মনে হচ্ছে উইলিয়ামসনের

  • দীর্ঘ দিনের কঠিন লড়াই আর পরিশ্রমের পরে সাউদাম্পটনের এসেজ বোলে ভারতকে হারিয়ে আইসিসির টেস্ট শিরোপা দখল করেন উইলিয়ামসন।

তিনি যেমনটা ভেবেছিলেন তার থেকেও বেশি ভারি ছিল বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ট্রফি। যেটা নিয়ে শুরুতে একটু ভ্যাবাচ্যাকাই খেয়ে গিয়েছিলেন কেন উইলিয়ামসন। এমনটা নিজেই জানিয়েছেন প্রথম বার অনুষ্ঠিত বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ী নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। 

দীর্ঘ দিনের কঠিন লড়াই আর পরিশ্রমের পরে সাউদাম্পটনের এসেজ বোলে ভারতকে হারিয়ে আইসিসির টেস্ট শিরোপা দখল করেন উইলিয়ামসন। ট্রফিটা যখন নিতে যাচ্ছিলেন, তখন তিনি ভেবেছিলেন, সেটা খুব একটা বেশি ভারি হবে না। কিন্তু তাঁর হাতে যখন অনেকটা গদার মতো দেখতে ট্রফিটা তুলে দেওয়া হয়, তখন উইলিয়ামসন টের পান এর আসল ওজন।

পরে এই প্রসঙ্গে কথা উঠলে সাংবাদিকদের কেন উইলিয়ামসন বলেন, ‘এর আগে আমরা কখনও-ই এই গদাটা স্পর্শ করিনি। তাই একেবারে অন্য রকম অনুভূতি ছিল। তবে আপনারা যতটা ভারি ভাবছেন, তার চেয়ে অনেক বেশি ভারি এই গদাটি। আমরা যতক্ষণ না এটাকে নিজেদের হাতে নিয়েছি, ততক্ষণ পর্যন্ত এর আসল ওজন কত, সেটা বুঝতে পারিনি!’

এই শিরোপা জেতার জন্য নিজের দলের প্রত্যেক সদস্যকে কৃতিত্ব দিয়েছেন কেন উইলিয়ামসন। কিউয়ি অধিনায়ক দাবি করেছেন, দলে অভিজ্ঞতা এবং তারুণ্যের সঠিক মেল বন্ধন থাকার কারণেই এই সাফল্যে এসেছে।

উইলিয়ামসন বলেছেন, ‘নতুন খেলোয়াড় এবং অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের একটা সুন্দর মেলবন্ধন ছিল এই দলে। রসের (টেলর) মতো অভিজ্ঞ একজন ছিলেন আমাদের দলে। যিনি এই জায়গায় বহু বছর ধরেই রয়েছেন। এবং সেটা একদিনের হয়নি। সকলের সঙ্গে কঠোর পরিশ্রম করার পরেই তিনি এই জায়গাটা অর্জন করেছেন। রস টেলর এবং বিজে ওয়াটলিংরাই অনুপ্রেরণা ছিল আমাদের। ওঁরা এই ম্যাচে নিজেদের সবটা নিংড়ে দিয়েছিলেন।’

বন্ধ করুন