বাংলা নিউজ > ময়দান > ঘরের মাঠে এএফসি কাপ খেলতে চায় না, চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিল এটিকে মোহনবাগান
এটিকে মোহনবাগানের লক্ষ্য এ বার এএফসি কাপ।
এটিকে মোহনবাগানের লক্ষ্য এ বার এএফসি কাপ।

ঘরের মাঠে এএফসি কাপ খেলতে চায় না, চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিল এটিকে মোহনবাগান

  • এটিকে মোহনবাগানের মলদ্বীপেই খেলার সম্ভাবনা বেশি। সেক্ষেত্রে দোহাতেও শিবির করতে পারে অন্তোনিও লোপেজ হাবাস।

করোনা যেন সব পরিকল্পনাই ভেস্তে দিয়েছে। প্রথমে এএফসি কাপ ঘরের মাঠে খেলতে চেয়ে চিঠি দিয়েছিল এটিকে মোহনবাগান। কিন্তু কয়েক মাসে পুরো পরিস্থিতি বদলে গিয়েছে। এটিকে মোহনবাগানের তরফে এএফসি -কে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হল, তারা আর ঘরের মাঠে খেলতে চায় না।

প্রসঙ্গত এএফসি কাপের ম্যাচ যদি কোনও দল আয়োজন করতে চায়, সেটা ২৬ মে-র মধ্যে চিঠি দিয়ে জানাতে বলা হয়েছিল। কিন্তু বাংলা সহ গোটা ভারতেই যে ভাবে করোনার হার বৃদ্ধি পেয়েছে, তাতে এটিকে মোহনবাগানের পক্ষে কোনও ভাবেই আর ম্যাচের আয়োজন করা সম্ভব নয় বলেই জানানো হয়েছে। এমনটাই সূত্র থেকে জানা গিয়েছে। সম্ভবত এই মাসের শেষেই এএফসি কাপের ম্যাচগুলি কোথায় হবে, সেটা ঠিক হয়ে যাবে। 

এটিকে মোহনবাগানের মলদ্বীপেই খেলার সম্ভাবনা বেশি। সেক্ষেত্রে দোহাতেও শিবির করতে পারে অন্তোনিও লোপেজ হাবাস। ভারতীয় দলের সঙ্গে এটিকে মোহনবাগানের বেশ কিছু ফুটবলার দোহাতে এশিয়া কাপের যোগ্যতা নির্ণয়ক পর্বের ম্যাচ খেলতে গিয়েছে। দলের বিদেশি ফুটবলারদেরও দোহায় শিবির হলে যোগ দিতে সুবিধে হবে। তা ছাড়া করোনার জন্য ভারতের পরিস্থিতিও ভাল নয়। তাই দোহাতে শিবির হলে সকলের সুবিধে হবে। তবে শিবির নিয়ে মোহনবাগান এখনও কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি।

এএফসি কাপের নতূন সূচি অনুযায়ী, ২৭ জুন বেঙ্গালুরুর মুখোমুখি হবে মলদ্বীপেরই ক্লাব ইগলস। এই ম্যাচে যারা জিতবে, তাদের সঙ্গে আন্তোনিও লোপেজ হাবাসের এটিকে মোহনবাগান খেলবে ৩০ জুন। এ ছাড়াও মোহনবাগানের খেলা রয়েছে ৩ এবং ৬ জুলাই। ৩ তারিখ মলদ্বীপের মাজিয়া স্পোর্টিস এন্ড রিক্রিয়েশনের বিরুদ্ধে খেলা। আর ৬ তারিখ বাংলাদেশের বসুন্ধরা কিংসের সঙ্গে খেলবে সবুজ-মেরুন ব্রিগেড।

বন্ধ করুন