বাংলা নিউজ > ময়দান > একটিও ম্যাচ না খেলে CSK থেকে বাদ পড়াই তাতায় পূজারাকে, ব্যাট হাতে জবাব দেন রয়্যাল লন্ডন ওয়ান ডে কাপে
মহেন্দ্র সিং ধোনি ও চেতেশ্বর পূজারা। ছবি- বিসিসিআই/গেটি।

একটিও ম্যাচ না খেলে CSK থেকে বাদ পড়াই তাতায় পূজারাকে, ব্যাট হাতে জবাব দেন রয়্যাল লন্ডন ওয়ান ডে কাপে

  • সাসেক্সের হয়ে রয়্যাল লন্ডন ওয়ান ডে কাপে T20-র ঢংয়ে ঝড় তুলে চেতেশ্বর পূজারা বুঝিয়ে দেন, তিনি সীমিত ওভারের ক্রিকেটেও চূড়ান্ত সফল হতে পারেন।

টিম ইন্ডিয়ার টেস্ট স্পেশালিস্ট চেতেশ্বর পূজারা যখন সাসেক্সের হয়ে কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে চূড়ান্ত সফল হন, অবাক হননি ক্রিকেটপ্রেমীরা। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিষ্ঠিত একজন দুর্দান্ত টেস্ট ক্রিকেটার ইংল্যান্ডের ঘরোয়া ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে ধারাবাহিকভাবে রান করলে, সত্যিই অবাক হওয়ার কিছু থাকে না। তবে চমক ছিল অন্য জায়গায়।

শুধু ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটের জন্যই নয়, বরং সাসেক্সের সঙ্গে পূজারার চুক্তি ছিল ৫০ ওভারের টুর্নামেন্টের জন্যও। ব্যাট হাতে কাউন্টি মাতালেও রয়্যাল লন্ডন ওয়ান ডে কাপে পূজারা সফল হবেন বলে ভাবেননি কেউই। চেতেশ্বর সকলকে শুধু ভুল প্রমাণিতই করেননি, বরং অবাক করে দেন নিজের পারফর্ম্যান্স দিয়ে।

৯টি ম্যাচে ব্যাট করতে নেমে চেতেশ্বর টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬২৪ রান সংগ্রহ করেন। ব্যাটিং গড় ছিল ৮৯.১৪। আরও উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, রয়্যাল লন্ডন ওয়ান ডে কাপে পূজারার স্ট্রাইক-রেট ছিল ১১১.৬২। এমন স্ট্রাইক-রেটে বহু ক্রিকেটার টি-২০'র আঙিনায় দাপট দেখান।

চেতেশ্বর টুর্নামেন্টে ৩টি সেঞ্চুরি ও ২টি হাফ-সেঞ্চুরি করেন। তাঁর বেশ কয়েকটি ইনিংস হার মানাবে টি-২০ ক্রিকেটকেও। সারের বিরুদ্ধে ১৩১ বলে ১৭৪ রান করার পথে পূজারা ২০টি চার ও ৫টি ছক্কা মারেন। মিডলসেক্সের বিরুদ্ধে ৯০ বলে ১৩২ রান করার পথে চেতেশ্বর ২০টি চার ও ২টি ছক্কা মারেন। ৯ ম্যাচে সাকুল্যে ৬০টি চার ও ১১টি ছক্কা মারেন পূজারা। তাঁর ব্যক্তিগত ইনিংসগুলি ছিল যথাক্রমে ৯, ৬৩, অপরাজিত ১৪, ১০৭, ১৭৪, অপরাজিত ৪৯, ৬৬, ১৩২ ও ১০ রানের।

আরও পড়ুন:- আরও পড়ুন:- T20 World Cup 2022: ফালতু তর্ক করে লাভ নেই! ওপেনে তো নয়ই, দরকারে কোহলিকে তিন নম্বর থেকেও সরিয়ে দেওয়ার দাবি গম্ভীরের

এমন পারফর্ম্যান্সের পরে সঙ্গত কারণেই পূজারা ভারতের ওয়ান ডে দলে কামব্যাকের কথা ভাবছেন। ঠুকঠুকে ব্যাটিংয়ে অভ্যস্ত পূজারা এমন ভোলবদলের রহস্য ফাঁস করেন নিজেই। দ্য ক্রিকেট পডকাস্টে চেতেশ্বর জানান, একটিও ম্যাচ না খেলে চেন্নাই সুপার কিংস থেকে বাদ পড়াই তাঁকে উদ্বুদ্ধ করে নিজেকে সীমিত ওভারের ক্রিকেটের উপযোগী করে তুলতে।

চেতেশ্বর বলেন, ‘এটা নিশ্চিতভাবেই আমার খেলার ভিন্ন দিক। এই নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। পিচ ভালো ছিল, একটু পাটা। তবে এমন পিচেও ভালো স্ট্রাইক-রেটে রান তোলার মানসিকতা দরকার হয়। এটা এমন একটা বিষয়, যা নিয়ে বরাবর পরিশ্রম করি। এক বছর আগে আমি চেন্নাই সুপার কিংসে ছিলাম। একটিও ম্যাচ খেলার সুযোগ পাইনি। দেখতাম সবাই প্রস্তুতি নিচ্ছে। তখনই নিজেকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম যে, আমি কি সত্যিই সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটের ক্রিকেট খেলতে চাই? আমি সব সময় নিজের উইকেটের মূল্য দিই। তবে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে আপনাকে নিজের শট খেলতেই হবে।'

আরও পড়ুন:- নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৩ ম্যাচে জোড়া শতরান করে রজত পতিদার ফের বোঝালেন, বড় মঞ্চের খেলোয়াড় তিনি, চোখ রাখুন পরিসংখ্যানে

পূজারা সেই সঙ্গে যোগ করেন, ‘রয়্যাল লন্ডন ওয়ান ডে কাপের আগে আমি বিশেষ কিছু শট খেলা ও স্ট্রাইক-রেটের দিকে নজর দিই। আমি গ্র্যান্টের কাছে যাই এবং ওর সঙ্গে কথা বলি। জানাই, কিছু শটের উপর আমি জোর দিতে চাই। ট্রেনিংয়ের সময় ও বলে যে, আমি শটগুলি খুব ভালো খেলছি, যেটা আমাকে আত্মবিশ্বাস জোগায়। আমার মনে হয়েছিল, কিছু লফটেড শটে জোর দিলে এবং সেগুলিকে যথাযথ খেলতে পারলে আমি সীমিত ওভারের ক্রিকেটেও সফল হতে পারি।’

বন্ধ করুন