বাড়ি > ময়দান > চ্যাপেলের দোষ নেই, ইরফানকে ব্যাটসম্যান বানাতে চাওয়ার ভাবনা ছিল টিম ইন্ডিয়ার সিনিয়র তারকার
সচিন তেন্ডুলকর ও গ্রেগ চ্যাপেলের সঙ্গে ইরফান পাঠান। ছবি- গেটি ইমেজেস।
সচিন তেন্ডুলকর ও গ্রেগ চ্যাপেলের সঙ্গে ইরফান পাঠান। ছবি- গেটি ইমেজেস।

চ্যাপেলের দোষ নেই, ইরফানকে ব্যাটসম্যান বানাতে চাওয়ার ভাবনা ছিল টিম ইন্ডিয়ার সিনিয়র তারকার

  • তাঁর অবনতির জন্য প্রাক্তন কোচকে অকারণে দায়ি করা হয় বলে জানালেন পাঠান।

ভারতীয় ক্রিকেটমহলে এতদিনে একটা বদ্ধমূল ধারণা তৈরি হয়েছে যে, ইরফান পাঠানকে অল-রাউন্ডার তৈরির চেষ্টায় কোচ গ্রেগ চ্যাপেল তাঁর বোলিংটাই নষ্ট করে দিয়েছিলেন। সমালোচকদের প্রায়শই বলতে শোনা যায় যে, ব্যাটিংয়ে মনোসংযোগ করতে গিয়ে বোলিং থেকে নজর সরে গিয়েছিল পাঠানের। যে কারণে, সুইং হারাতেই বোলার হিসেবে অচল হয়ে পড়েন ইরফান।

জুনিয়র পাঠান নিজে কখনও দোষ দেননি চ্যাপেলকে। তিনি বরাবর দাবি করে এসেছেন যে, তাঁর অবনতির জন্য গুরু গ্রেগকে দায়ি করা কখনই ঠিক নয়। অবসর নেওয়ার পরেই পাঠান জানিয়েছিলেন, বিতর্কিত কোচিং অধ্যায়ের জন্যই চ্যাপেল তাঁর প্রতিভা নষ্ট করে দিয়েছেন বলে দাবি করা হয়, যেটা একেবারেই সত্যি নয়। এবার ইরফান ফাঁস করলেন আসল রহস্য।

পাঠান জানান, তাঁকে ব্যাটসম্যান হিসেবে তিন নম্বরে তুলে আনার পরমর্শ গ্রেগ চ্যাপেলের ছিল না। এমন ভাবনা ছিল সচিন তেন্ডুলকরের। সচিনই ক্যাপ্টেন রাহুল দ্রাবিড়কে বলেছিলেন নতুন বলে তাঁর পাওয়ার হিটিং দলের কাজে লাগতে পারে।

ইরফান বলেন, ‘অবসর নেওয়ার পরেই আমি এটা জানিয়েছিলাম। যাঁরা ভাবেন আমাকে তিন নম্বরে ব্যাট করতে পাঠিয়ে গ্রেগ চ্যাপেল আমার কেরিয়ার নষ্ট করে দিয়েছেন, এটা ঠিক নয়। আসলে এটা ছিল সচিন পাজি’র আইডিয়া। সচিন পাজিই রাহুল দ্রাবিড়কে পরমর্শ দেয় আমাকে তিন নম্বরে ব্যাট করতে পাঠানোর। দ্রাবিড়কে সচিন পাজি বলে, ওর (ইরফানের) ছক্কা মারার ক্ষমতা রয়েছে। নতুন বলে পেসারদেরও সামলাতে পারে। সচিন পাজি'র পরামর্শ মতোই আমাকে ব্যাটিং অর্ডারের উপরের দিতে তুলে আনা হয়। তাই গ্রেগ চ্যাপেলকে দোষ দেওয়া ঠিক নয়। যেহেতু চ্যাপেল ভারতীয় নন, তাই সহজেই ওঁকে পাঞ্চিং ব্যাগ বানানো হয়।'

বন্ধ করুন