বাংলা নিউজ > ময়দান > এটা ১০৮ এ অল আউট হওয়ার উইকেট নয় কিন্তু...- কী যুক্তি দিলেন হার্দিক

এটা ১০৮ এ অল আউট হওয়ার উইকেট নয় কিন্তু...- কী যুক্তি দিলেন হার্দিক

উইকেট শিকার করার পরে হার্দিক পান্ডিয়ার সেলিব্রেশন (ছবি-এএফপি)

হার্দিক পান্ডিয়া বলেন, ‘সত্যি বলতে কি এটি একটি অসাধারণ দিন। আমরা উইকেটটি সঠিকভাবে ব্যবহার করেছি এবং আমাদের জন্য সবকিছু ঠিকঠাক গিয়েছে। এটা মোটেও খারাপ ছিল না।’ রিটার্ন ক্যাচ প্রসঙ্গে হার্দিক বলেন, ‘প্রতিটি ম্যাচের সঙ্গে সঙ্গে আমার শরীরটাও বেশ ভালো অনুভব করছে। এটা সুন্দরভাবে এবং সময়মত ভালো হয়েছে।’

ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড সিরিজের দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচে রায়পুরে প্রথমে ব্যাট করে নিউজিল্যান্ড দল মাত্র ১০৮ রানে গুটিয়ে গেছে। ব্লেয়ার টিকনারকে এলবিডব্লিউ আউট করে নিউজিল্যান্ডের ইনিংস শেষ করেন কুলদীপ যাদব। দুই রান করেন টিকনার। অপর প্রান্তে হেনরিও দুই রান করে অপরাজিত থাকেন। এই সিরিজ জিততে এখন ভারতের সামনে ১০৯ রানের সহজ লক্ষ্য।

আরও পড়ুন… Hack হল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের টুইটার অ্যাকাউন্ট!

এই ম্যাচে ভারতীয় দল টস জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেয় এবং ভারতের ফাস্ট বোলাররা ক্যাপ্টেন রোহিতের সিদ্ধান্তকে সঠিক প্রমাণ করে। প্রথম ওভারেই ফিন অ্যালেনকে বোল্ড করেন শামি। এ পর্যন্ত নিউজিল্যান্ডের খাতাও খোলা হয়নি। ষষ্ঠ ওভারে হেনরি নিকোলসকে ওয়াকড করেন সিরাজ। সপ্তম ওভারে ড্যারিল মিচেলকে প্যাভিলিয়নে পাঠান শামি। দশম ওভারে কনওয়ে এবং একাদশ ওভারে প্যাভিলিয়নে ফেরেন অধিনায়ক ল্যাথামও। ১৫ রানের মধ্যে নিউজিল্যান্ড দলের অর্ধেক ব্যাটার প্যাভিলিয়নে ফিরে গিয়েছিল এবং কোনও ব্যাটসম্যানই দুই অঙ্ক স্পর্শ করতে পারেনি। পাঁচ উইকেটের সবকটিই উইকেটই নিয়েছিলেন ভারতের ফাস্ট বোলাররা।

আরও পড়ুন… ভিডিয়ো: কেউ কি এমন আউটও মিস করতে পারে? না দেখলে আপনিও বিশ্বাস করতে পারবেন না

এরপর ইনিংস সামলান কিউয়ি ব্যাটার গ্লেন ফিলিপস ও মাইকেল ব্রেসওয়েল। দুজনেই ৪১ রানের জুটি গড়েন। এরপর ব্রেসওয়েলও আউট হন ২২ রান করে। স্যান্টনারও ২৭ রান করেন এবং ফিলিপসের সঙ্গে ৪৭ রানের জুটি গড়েন। গ্লেন ফিলিপসও ৩৬ রান করে আউট হন। এ সময় নিউজিল্যান্ডের স্কোর ছিল ১০৩ রান। এরপর নিউজিল্যান্ডের ইনিংস গুটিয়ে দেন সুন্দর ও কুলদীপ। কিউয়ি দল ৩৪.৩ ওভারে ১০৮ রানে গুটিয়ে যায়।

হার্দিক পান্ডিয়া বলেন, ‘সত্যি বলতে কি এটি একটি অসাধারণ দিন। আমরা উইকেটটি সঠিকভাবে ব্যবহার করেছি এবং আমাদের জন্য সবকিছু ঠিকঠাক গিয়েছে। এটা মোটেও খারাপ ছিল না।’ রিটার্ন ক্যাচ প্রসঙ্গে হার্দিক বলেন, ‘প্রতিটি ম্যাচের সঙ্গে সঙ্গে আমার শরীরটাও বেশ ভালো অনুভব করছে। এটা সুন্দরভাবে এবং সময়মত ভালো হয়েছে।’ তিনি দলের বোলিং পারফরমেন্স নিয়ে কথা বলতে গিয়ে আরও বলেন, ‘আমরা সঠিক জায়গায় বল করতে পেরেছি। ব্যাটারদের উপর পরীক্ষা চালিয়েছি। এটা এমন একটা দিন যখন সবকিছু ঠিকঠাক যাচ্ছে এবং সব বল ঠিকঠাক ভাবেই ফিল্ডারদের কাছে গিয়েছে এবং আমরা ক্যাচগুলি ধরতে সক্ষম হয়েছি।’ রানের লক্ষ্য পূরণ করার প্রসঙ্গে হার্দিক পান্ডিয়া বলেন, ‘এটি ১০৮ রানের উইকেট নয়, তবে আমরা আমাদের সমস্ত সুযোগ নিয়েছি, ব্যাটারদের সিদ্ধান্ত নিতে দিন কীভাবে ব্যাট করতে হবে, দিনের শেষে, এটি কীভাবে তাড়া করতে হবে তা তাদের কল।’

এই ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন গ্লেন ফিলিপস। একই সময়ে মিচেল স্যান্টনার ২৭ ও ব্রেসওয়েল ২২ রান করেন। এই তিনজন ছাড়া আর কোনও কিউয়ি ব্যাটসম্যানই দুই অঙ্ক ছুঁতে পারেননি। ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট নেন মহম্মদ শামি। দুটি করে উইকেট নেন হার্দিক পান্ডিয়া ও ওয়াসিংটন সুন্দর। একটি করে উইকেট নেন মহম্মদ সিরাজ, শার্দুল ঠাকুর ও কুলদীপ যাদব।

 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন