বাংলা নিউজ > ময়দান > একটা সময়ে বিনিদ্র রাত কাটিয়েছেন, কিন্তু ওভাল টেস্টই ভাগ্য বদলে দিয়েছিল জাদেজার
রবীন্দ্র জাদেজা।
রবীন্দ্র জাদেজা।

একটা সময়ে বিনিদ্র রাত কাটিয়েছেন, কিন্তু ওভাল টেস্টই ভাগ্য বদলে দিয়েছিল জাদেজার

  • ২০১৮ সালের ওভাল টেস্টের পর তাঁর ভাগ্য পুরো বদলে যায়। সেই বছর ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিল ভারত। তার পর থেকে পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাঁকে।

তখন ২০১৭-'১৮ সাল। ভারতীয় দলের প্রথম একাদশের নিয়মিত সদস্য ছিলেন না রবীন্দ্র জাদেজা। সেই সময় নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে এতটাই দুঃশ্চিন্তা করতেন যে, রাতের পর রাত চোখের পাতা এক করতে পারতেন না। গোটা রাত জেগে কাটাতেন। সেই সঙ্গে শুধু ভাবতেন, দলে যদি সুযোগই না পান, তবে কী ভাবে তিনি নিজেকে প্রমাণ করবেন তিনি! ২০১৮ সালে অবশ্য ওভাল টেস্টই তাঁর ভাগ্য পুরো বদলে দেয়।

একটি সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময়ে তাঁর যন্ত্রণার দিনগুলির কথা ভাগ করে নিয়েছেন জাদেজা। বলেছেন, ‘প্রায় এক-দেড় বছর আমি গোটা রাত না ঘুমিয়ে কাটিয়েছি। ভোর চারটে-পাঁচটে পর্যন্ত জেগে কাটাতাম। ভাবতাম কী করব, কীভাবে ঘুরে দাঁড়াব! আমি ঘুমাতেই পারতাম না। শুয়ে থাকলেও ঘুম আসত না’ 

এরই সঙ্গে তিনি যোগ করেন, ‘আমি টেস্ট দলে ছিলাম। বিদেশে প্রচুর খেলা হলেও আমি সুযোগ পেতাম না। আমি একদিনের দলেও সুযোগ পাইনি তখন। এমনকী ঘরের মাঠেও নয়। শুধু দলের সঙ্গেই ঘুরেছি। কিন্তু নিজেকে প্রমাণ করার সুযোগ পেতাম না। তখন খালি মনে হত, কী করব, ভাবে ঘুরে দাঁড়াব!’

তবে ২০১৮ সালের ওভাল টেস্টের পর তাঁর ভাগ্য পুরো বদলে যায়। সেই বছর ইংল্যান্ড সফরে গিয়েছিল ভারত। পঞ্চম টেস্ট ম্যাচটি ছিল ওভালে। সেই টেস্টে ব্যাট-বল হাতে দুরন্ত পারফরম্যান্স করেছিলেন জাদেজা। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৭ উইকেট নিয়েছিলেন। প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের ৩৩২ রান তাড়া করতে নেমে, ভারতের যখন ১৬০ রানে ৬ উইকেট পড়ে গিয়েছিল, তখন আটে নেমে ১৫৬ বলে অপরাজিত ৮৬ রানের ইনিংস খেলেছিলেন জাদেজা। তাঁর জন্যই প্রথম ইনিংসে ভারত ২৯২ রান করতে পেরেছিল। যদিও সেই টেস্ট ১১৮ রানে হেরে যায় ভারত।

জাদেজা বলছিলেন, ‘সেই টেস্টই আমার সব কিছু বদলে দিয়েছিল। আমার পারফরম্যান্স, আমার আত্মবিশ্বাস, সব কিছু। যখন ইংল্যান্ডের আবহাওয়ায় সেরা বোলিং অ্যাটাকের বিরুদ্ধে রান করা যায়, তখন আত্মবিশ্বাস অনেকটাই বেড়ে যায়। এবং এই সময় মনে হয়, টেকনিকটাও একেবারে ঠিকঠাক রয়েছে, যার ফলে বিশ্বের যে কোনও জায়গায় রান করার সমস্যা হবে না।’

অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে চোট নিয়ে ফিরে এসেছিলেনল জাদেজা। তার পর চোটের জায়গায় তাঁর অস্ত্রোপচারও হয়। তবে চোটমুক্তি হয়ে আইপিএলে মাঠে নেমে চেন্নাই সুপার কিংসের জার্সিতে দুরন্ত ছন্দে পাওয়া যায় জাড্ডুকে। এখন তিনি ভারতীয় দলেরও গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পয়নশিপের ফাইনাল খেলতে ভারতীয় দলের সঙ্গে ২ জুন ইংল্যান্ডে উড়ে যাবেন। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধ ১৮-২২ জুন ফাইনাল খেলার পর, ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে জাদেজারা।

বন্ধ করুন