বাংলা নিউজ > ময়দান > বিশ্বের সর্বকালের দ্বিতীয় দ্রুততম মহিলা হলেন জামাইকান স্প্রিন্টার শেলি-অ্যান
এই মুহূর্তে বিশ্বের দ্রুততম মহিলা শেলি-অ্যান ফ্রেজার-প্রাইস।
এই মুহূর্তে বিশ্বের দ্রুততম মহিলা শেলি-অ্যান ফ্রেজার-প্রাইস।

বিশ্বের সর্বকালের দ্বিতীয় দ্রুততম মহিলা হলেন জামাইকান স্প্রিন্টার শেলি-অ্যান

  • ১০০ মিটারের ইতিহাসে বিশ্বের দ্রুততম মহিলাদের যে রেকর্ড রয়েছে, তাতে প্রথম তিনটি স্থানই ধরে রেখেছেন ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নার। তাঁর সেরা টাইমিং ১০.৪৯। এ ছাড়াও ১০.৬১ এবং ১০.৬২ ফ্লোরেন্স গ্রিফিথের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় সেরা।

একের পর এক রেকর্ড তিনি গড়েছেন। এই মুহূর্তে বিশ্বের দ্রুততম মহিলা তিনিই। এ বার সর্বকালের দ্বিতীয় দ্রুততম মহিলার নজির গড়লেন শেলি-অ্যান ফ্রেজার-প্রাইস। তবু নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে একটা আফসোস রয়েই গিয়েছে। 

সর্বকালের দ্রুততম স্প্রিন্টার না হতে পারার। সেই জায়গাটা ধরে রেখেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নার। দ্বিতীয় স্থানটি ছিল যুক্তরাষ্ট্রেরই কারমেলিটা জেটারের। ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নারকে ধরতে না পারলেও কারমেলিটাকে ছাপিয়ে গেলেন জামাইকার শেলি-অ্যান ফ্রেজার-প্রাইস। 

১০০ মিটার রেসের ক্ষেত্রে শুধু কারমেলিটাই (১০.৬৪) নন, এত দিন তিনে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের আর এক স্প্রিন্টার মারিয়ন জোনসও (১০.৬৫) স্বাভাবিক ভাবেই পিছনে পড়ে গিয়েছেন। টোকিয়ো অলিম্পিক্সের ঠিক আগে শনিবার ১০০ মিটারে জামাইকার তারকা স্প্রিন্টার শেলি-অ্যান সময় নিয়েছেন  ১০.৬৩। ৩৩ বছরের ইতিহাসে ১০০ মিটারে এটাই দ্রুততম রেকর্ড।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী ১০০ মিটারের ইতিহাসে বিশ্বের দ্রুততম মহিলাদের যে রেকর্ড রয়েছে, তাতে প্রথম তিনটি স্থানই ধরে রেখেছেন ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নার। তাঁর সেরা টাইমিং ১০.৪৯। এ ছাড়াও ১০.৬১ এবং ১০.৬২ ফ্লোরেন্স গ্রিফিথের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় সেরা।

১০০ মিটারের ইতিহাসে দ্রুততম কারা, দেখে নিন এক নজরে:

১) ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নার (যুক্তরাষ্ট্র)- ১০.৪৯

২) ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নার (যুক্তরাষ্ট্র)- ১০.৬১

৩) ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নার (যুক্তরাষ্ট্র)- ১০.৬২

৪) শেলি-অ্যান ফ্রেজার-প্রাইস (জামাইকা)- ১০.৬৩

৫) কারমেলিটা জেটার (যুক্তরাষ্ট্র)- ১০.৬৪

৬) মারিয়ন জোনস (যুক্তরাষ্ট্র)- ১০.৬৫

এখন শেলি-অ্যানের সামনে রয়েছেন একমাত্র ফ্লোরেন্স গ্রিফিথ জয়নার। তাঁকে টপকাতে কী পারবেন জামাইার তারকা স্প্রিন্টার? নাকি ফ্লোরেন্স গ্রিফিথের রেকর্ড অক্ষুন্নই থাকবে? সেই উত্তর অবশ্য সময়ই দেবে!

বন্ধ করুন