বাংলা নিউজ > ময়দান > ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্রাত্য, নেটে স্টোকসদের বিরুদ্ধে আগুন ঝরালেন মতিন তেলি
নেটে স্টোকসদের বিরুদ্ধে আগুন ঝরালেন মতিন তেলি। ছবি: টুইটার

ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্রাত্য, নেটে স্টোকসদের বিরুদ্ধে আগুন ঝরালেন মতিন তেলি

  • ইংল্যান্ড টেস্ট দলের নেট বোলার হিসেবে সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছেন উত্তর কাশ্মীরের সাপোরের বাসিন্দা মতিন। ক্রিকেটও খেলেছেন দিল্লির বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে। জম্মু-কাশ্মীর দলের ট্রায়ালে একাধিক বার ডাক পান মতীন। তবে রাজ্য দলের দরজা খুলতে পারেননি।

শুভব্রত মুখার্জি: দুই জনেই জম্মু-কাশ্মীরের ভূমিপুত্র। একজন যখন আইপিএলের মঞ্চে পারফর্ম করে শুষে নিচ্ছেন সমস্ত প্রচারের আলো, তখন অপরজনকে ভারতীয় ঘরোয়া ক্রিকেটে সুযোগ না পেয়ে পাড়ি জমাতে হয়েছে সূদুর ইংল্যান্ডে। একজন উমরান মালিক। যিনি সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দলের হয়ে সদ্য শেষ হওয়া আইপিএলে আগুন গতিতে বোলিং করে উইকেট নিয়ে জায়গা করে নিয়েছেন ভারতীয় সিনিয়র দলে। অপরজন মতিন তেলি। তিনি আগুন ঝরাচ্ছেন সাত সমুদ্র পেরিয়ে বেন স্টোকসদের নেটে।

জম্মু-কাশ্মীরের দলে ট্রায়ালে ভালো বল করলেও নিজের রাজ্যের হয়ে ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার সুযোগ পাননি মতিন। বয়সভিত্তিক কোনও দলেও জায়গা করতে না পারা মতীন তেলিকে অবশ্য সুযোগ দিয়েছেন ব্রেন্ডন ম্যাককালামরা। ইংল্যান্ড টেস্ট দলের নেট বোলার হিসেবে সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছেন উত্তর কাশ্মীরের সাপোরের বাসিন্দা মতিন। ক্রিকেটও খেলেছেন দিল্লির বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে। জম্মু-কাশ্মীর দলের ট্রায়ালে একাধিক বার ডাক পান মতীন। তবে রাজ্য দলের দরজা খুলতে পারেননি।

নয়ডার সারদা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস কমিউনিকেশনে স্নাতকোত্তর। তারপরে উচ্চতর পড়াশোনার জন্য ইংল্যান্ডের নটিংহ্যামে পাড়ি জমান মতীন। ২৩ বছর বয়সি পড়াশোনার পাশাপাশি ক্রিকেটটা চালিয়ে গিয়েছেন সমানতালে। ইংল্যান্ডের ক্লাব ক্রিকেটে ধারাবাহিক ভালো পারফরম্যান্সে তার ভাগ্য শিকে ছেড়ে। ডাক পান ইংল্যান্ডের জাতীয় দলের নেটে। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টের প্রস্তুতির জন্য ইংল্যান্ড দলের তরফে নটিংহ্যাম কাউন্টি ক্লাবের কাছে বেশ কিছু বোলার চাওয়া হয়। নটিংহ্যাম কর্তৃপক্ষ তাদের মধ্যে মতীনকেও পাঠায় রুটদের সাহায্যার্থে।

মতীন জানান 'নটিংহ্যাম কাউন্টির সহকারী কোচ বিলাল সাফায়াত হঠাৎ করেই ফোন করেন। উনিই বলেন প্রস্তুতির জন্য ইংল্যান্ড দল কয়েক জন ভাল স্থানীয় বোলার চেয়েছে। তোমার নাম প্রস্তাব করেছি। তুমি ইংল্যান্ডের নেটে বল করতে রাজি? প্রস্তাব শুনে আমি আর সম্মতি দিতে দেরি করিনি। স্বপ্নের ক্রিকেট-নায়কদের সঙ্গে সাজঘর ভাগ করে নেওয়া সুযোগ কি কখনও ছাড়া বা হারানো যায়?'

বন্ধ করুন