বাংলা নিউজ > ময়দান > সামনেই অলিম্পিক্স টোকিওতে জারি হচ্ছে জরুরী অবস্থা
টোকিওতে চালু হবে জরুরী অবস্থা (ছবি: দ্য নেশন)
টোকিওতে চালু হবে জরুরী অবস্থা (ছবি: দ্য নেশন)

সামনেই অলিম্পিক্স টোকিওতে জারি হচ্ছে জরুরী অবস্থা

টোকিও অলিম্পিক্সে কি স্থানিয় দর্শক প্রবেশ নিষেধ? আসন্ন অলিম্পিক্সের কথা মাথায় রেখে টোকিও সহ চার শহরে চালু হচ্ছে জরুরী অবস্থা।    

টোকিও অলিম্পিক্সের কথায় মাথায় রেখে টোকিওতে জরুরী অবস্থা জারি করছে জাপান সরকার। শুধু টোকিওতে নয়, জাপানের আরও তিনটি শহরে জারি করা হবে জরুরী অবস্থা। ২৫শে এপ্রিল থেকে ১১মে পর্যন্ত অ্যালকহলের সকল পরিষেবা বন্ধ রাখা হবে। স্থানীয় মানুষের জীবনযাত্রার উপরেও নজর রাখবে সরকার। এই দিন গুলোতে শপিং মল সহ বন্ধ থাকবে বেশ কিছু স্থান যেখানে প্রচুর মানুষের ভিড় বা জমায়েত হয়। টোকিও শহর ছাড়াও ওসাকা, কায়োটো, হাইওগোতে একই নিয়ম চালু রাখা হবে।

টোকিও অলিম্পিক্স গেম শুরু হতে বাকি আর তিন মাস। তার আগে বৈঠকে বসেছিল জাপানের আধিকারিকরা। বৈঠকে বেশ কিছু বিষয় উঠে আসে, প্রশ্ন করা হয়, তাহলে কি অলিম্পিক্সে স্থানিয় দর্শকদের প্রবেশে কোনও বাধা থাকবে। এই বিষয়ে এখনও নিজেদের মত প্রকাশ করেনি আন্তর্জাতিক অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন কতৃপক্ষ।

তবে জাপান সরকার চাইছে স্থানিয় দর্শকের প্রবেশে যেন কোনও নিষেধাজ্ঞা না থাকে। তবে আইওএ ও বাকি সংগঠকরা এখনও এই বিষয়ে সবুজ সংকেত দেয়নি। জাপান সরকারের তরফ করোনার দ্বিতীয় ঢেউকে আটকানোর জন্য জানুয়ারি থেকেই ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। জানুয়ারি থেকে মাঝে মাঝেই বিভিন্ন শহরে লকডাউন করা হচ্ছে। যেহেতু জাপানে করোনা ভ্যাকসিন খুব ধীর গতিতে মানুষের মধ্যে দেওয়া হচ্ছে তাই খুব সতর্কতার সঙ্গে কাজ করছে জাপান। 

এমন অবস্থায় সুষ্ঠ ভাবে অলিম্পিক্স আয়োজনের জন্য টোকিও সহ চার শহরে জরুরী অবস্থাও জারি করে দেওয়া হচ্ছে। আর দু’দিন পর থেকেই কার্যকারী হবে এই নিয়ম।    

বন্ধ করুন