বাংলা নিউজ > ময়দান > ভারতের বোলিং বিভাগই বিশ্বের সেরা, এই পরিসংখ্যানই দিচ্ছে প্রমাণ
এজবাস্টনে উইকেট নিয়ে জসপ্রীত বুমরাহর সেলিব্রেশন। ছবি- এপি। (AP)

ভারতের বোলিং বিভাগই বিশ্বের সেরা, এই পরিসংখ্যানই দিচ্ছে প্রমাণ

  • পঞ্চম টেস্টে ইতিমধ্যেই ইংল্যান্ডের তিন উইকেট তুলে নিয়েছে ভারত।

ভারত-ইংল্যান্ড পঞ্চম টেস্টের আগে ইংল্যান্ডের আগ্রাসী ব্যাটিংকে ভারতীয় বোলাররা কী ভাবে সামাল দেবেন, সেই নিয়ে জোর জল্পনা শোনা যাচ্ছিল ক্রিকেটমহলে। তবে ভারতীয় দলের এক পরিসংখ্যান কিন্তু বেমালুম এড়িয়ে গিয়েছিলেন অনেকেই।  

সদ্য সমাপ্ত নিউজিল্যান্ড সিরিজে পরপর ২৫০-র ওপর রান তাড়া করে ম্যাচ জিতেছে ইংল্যান্ড।  সাধ করে সেই আগ্রাসী ব্যাটিং অ্যাপ্রোচের নাম দেওয়া হয়েছে ‘ব্যাজবল’। ইংল্যান্ড দলের নতুন কোচ ব্রেন্ডন ম্যাকালামের নামেই এই নামকরণ। তবে ভারতীয় বোলিং আক্রমণ কিন্তু একেবারেই হেলাফেলার পাত্র নয়। ভারতীয় স্পিনারদের দাপটে ঘরের মাঠে বরাবরই ভাল খেলেছে ভারত। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে ভারতীয় পেস বোলাররা, ভারতীয় দলের ছবিটাই সম্পূর্ণভাবে বদলে দিয়েছে। এর ফলস্বরূপ বিদেশের মাটিতে নিয়মিতভাবে ম্যাচ জেতাও শুরু করে দিয়েছে টিম ইন্ডিয়া।

জসপ্রীত বুমরাহ, মহম্মদ শামিদের বর্তমান বিশ্বের সেরা ফাস্ট বোলারদের মধ্যে গণ্য করা হয়। পেস বোলিং আক্রমণ ভাল হতেই ভারতের গোটা বোলিং বিভাগের ছবিটাই বদলে গিয়েছে। এতটাই বদলেছে যে, পরিসংখ্যানের বিচারে অন্তত ভারতীয় দলই বিগত পাঁচ বছরে বিশ্বের সেরা বোলিং আক্রমণ। ভারতীয় বোলারদের বোলিং গড় শেষ পাঁচ বছরে ২৩.৫৬, যা সব দলের মধ্যে সেরা। স্পষ্টতই এটাই ভারতীয় দলের হালে সাফল্যের অন্যতম প্রধান কারণ। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পঞ্চম টেস্টে শুরুটাও ভাল করেছেন বুমরাহরা। ৫০ রান পার করার আগেই ইংরেজদের তিন উইকেট ফেলে দিয়েছে ভারত। সুতরাং, ‘ব্যাজবল’ বনাম ভারতীয় বোলিংয়ের প্রথম রাউন্ডে জয়ী কিন্তু ভারতই।

বন্ধ করুন