বাংলা নিউজ > ময়দান > BCCI-র কাছে বাইজুসের ৮৬ কোটির বেশি ধার, প্রধান স্পনসর সরে যেতে চাইছে, কী হাল!
বিসিসিআই।

BCCI-র কাছে বাইজুসের ৮৬ কোটির বেশি ধার, প্রধান স্পনসর সরে যেতে চাইছে, কী হাল!

  • বিসিসিআইকে টিম ইন্ডিয়ার টাইটেল স্পনসর মাস্টারকার্ডকে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছে ফিনটেক কোম্পানি পেটিএম। পেটিএম এবং বিসিসিআই-এর মধ্যে বর্তমান চুক্তিটি ২০১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ২০২৩ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

বিসিসিআই-এর কাছে ভারতীয় ক্রিকেট দলের জার্সি স্পনসর বাইজুসের বকেয়া হিসেবে ৮৬.২১ কোটি টাকা ধার রয়েছে। প্রধান স্পনসরর পেটিএম (Paytm) বেরিয়ে যেতে চাইছে। বোর্ডকে তাদের অধিকার তৃতীয় পক্ষের কাছে হস্তান্তর করার জন্য অনুরোধ করেছে তারা।

প্রসঙ্গত এপ্রিল মাসেই এডটেক কোম্পানি বাইজুস এবং বিসিসিআই ভারতে অনুষ্ঠিত ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপের শেষ পর্যন্ত তাদের পার্টনারশিপ বাড়াতে সম্মত হয়েছিল, যা ১০ শতাংশ বৃদ্ধি করা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার বিসিসিআই অ্যাপেক্স কাউন্সিলে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বিসিসিআইয়ের একটি সূত্র বৈঠকের পরে পিটিআইকে জানিয়েছে, ‘আজ পর্যন্ত বাইজুসের কাছে বোর্ডের পাওনা ৮৬.২১ কোটি টাকা।’

আরও পড়ুন: পিছিয়ে গেল শুনানি, এক সপ্তাহ পরে ভাগ্য নির্ধারণ সৌরভ-জয় শাহের

যাইহোক, বাইজুসের একজন মুখপাত্র পিটিআইকে বলেছেন, ‘আমরা বিসিসিআইয়ের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ বাড়িয়েছি। তবে এটি এখনও স্বাক্ষরিত হয়নি। চুক্তি স্বাক্ষর হওয়ার পরেই, টাকা-পয়সার লেনদেন চুক্তিভিত্তিক অর্থপ্রদানের শর্তাবলী অনুযায়ী ঘটবে। তাই আমাদের পক্ষ থেকে কোনও পাওনা বাকি নেই।’

আরও পড়ুন: চাটার্ড বিমানে ওয়েস্ট ইন্ডিজে গিয়েছে ভারতীয় দল, খরচ শুনলে চমকে যাবেন!

বাইজু প্রথম বোর্ডে যোগ হয় ২০১৯ সালে, যখন মোবাইল প্রস্তুতকারক অপো (Oppo) অনলাইন টিউটোরিয়াল ফার্মে স্পনসরশিপ অধিকার স্থানান্তর করে।

গত মাসে স্টার্ট-আপ সংস্থাটি বলেছিল যে, ৫০০ জনকে ছাঁটাই করা হয়েছে। তবে রিপোর্ট বলছে, ১,০০০ জনেরও বেশি বরখাস্ত করা হয়েছে।

একই দিকে জানা গিয়েছে যে, বিসিসিআইকে টিম ইন্ডিয়ার টাইটেল স্পনসর মাস্টারকার্ডকে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছে ফিনটেক কোম্পানি পেটিএম। পেটিএম এবং বিসিসিআই-এর মধ্যে বর্তমান চুক্তিটি ২০১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ২০২৩ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

কোম্পানিটি স্পনসরশিপ পুনরায় নিয়োগের অনুরোধ করার জন্য জুলাইয়ের টাইমলাইন মিস করে। যাইহোক, দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিনের সম্পর্কের কথা মাথায় রেখে, পেটিএম-এর অনুরোধ বিবেচনা করবে বিসিসিআই।

বন্ধ করুন