বাংলা নিউজ > ময়দান > বাংলা ক্রিকেটে নতুন ভূমিকায় ঝুলন, এ বার কি অবসরের ভাবনা তারকা ক্রিকেটারের?
ঝুলন গোস্বামী।

বাংলা ক্রিকেটে নতুন ভূমিকায় ঝুলন, এ বার কি অবসরের ভাবনা তারকা ক্রিকেটারের?

  • সিএবি সভাপতি অভিষেক ডালমিয়া জানিয়ে দিয়েছেন, বাংলার মহিলা দলের ক্রিকেটার হওয়ার পাশাপাশি অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ঝুলনকে। মহিলাদের প্রতিটি বসয়ভিত্তিক দলের মেন্টরের ভূমিকা পালন করবেন তিনি। ভারতীয় দলে দীর্ঘ দিনের অভিজ্ঞতা ঝুলনের। তাঁর নেতৃত্বে বাংলার মহিলা ক্রিকেটের উন্নতি হবে বলে আশাবাদী সিএবি।

এ বার নতুন ভূমিকায় ঝুলন গোস্বামী। তাঁকে বড় দায়িত্ব দিল সিএবি। এ বার থেকে বাংলার মহিলা দলের ক্রিকেটার হওয়ার পাশাপাশি মেন্টরের ভূমিকাতেও দেখা যাবে অভিজ্ঞ এই বোলারকে। বৃহস্পতিবার বাংলার ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের তরফে এ কথা ঘোষণা করা হয়।

বাংলার মহিলা ক্রিকেটারদের মানসিকভাবে তৈরি করার পাশাপাশি ক্রিকেটের মান উন্নয়নে সাহায্য করবেন ঝুলন। আসলে ঝুলনের মতো এত বড় মাপের ক্রিকেটারের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চাইছেন সিএবি কর্তারা। তবে শুধু সিনিয়র দল নয়, সমস্ত বয়স ভিত্তিক দলের প্লেয়ারদের সঙ্গেই কাজ করবেন ঝুলন। বৃহস্পতিবার সিএবিতে ঝুলন গোস্বামীর সঙ্গে বৈঠক করেন কর্তারা। ‌ বৈঠকে ঝুলনকে নয়া ভূমিকায় কাজ করার জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ‘নতুন চিন্তা-ভাবনা আনতে চাই’, সরকারি ভাবে কোচের দায়িত্ব পেয়ে সাফ দাবি লক্ষ্মীর

এই প্রস্তাবে সঙ্গে সঙ্গে রাজিও হয়ে যান ঝুলন। আসলে সব সময় বাংলা মহিলা ক্রিকেটের উন্নতিতে কাজ করতে চেয়েছেন ঝুলন। আরও অনেক ঝুলনকে যাতে বাংলা পায়, সেই নিয়ে মূলত কাজ করবেন তিনি।

সিএবি সভাপতি অভিষেক ডালমিয়া জানিয়ে দিয়েছেন, বাংলার মহিলা দলের ক্রিকেটার হওয়ার পাশাপাশি অতিরিক্ত দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ঝুলনকে। মহিলাদের প্রতিটি বসয়ভিত্তিক দলের মেন্টরের ভূমিকা পালন করবেন তিনি। ভারতীয় দলে দীর্ঘ দিনের অভিজ্ঞতা ঝুলনের। তাঁর নেতৃত্বে বাংলার মহিলা ক্রিকেটের উন্নতি হবে বলে আশাবাদী সিএবি।

আরও পড়ুন: লক্ষ্মী বাংলার সিনিয়রদের দায়িত্বে, বদলে অনূর্ধ্ব-২৫-এর কোচ হলেন ভারতের প্রাক্তনী

দিন কয়েক আগেই এনসিএ থেকে রিহ্যাব শেষ করে শহরে ফিরেছেন ঝুলন। চোটের কারণে বিশ্বকাপের শেষ ম্যাচ থেকেই আর মাঠে নামতে পারেননি তিনি। জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমি থেকে এখনও ফিট সার্টিফিকেট না এলেও, নিজে জানাচ্ছেন মাঠে নামার জন্য তিনি তৈরি। আসন্ন ইংল্যান্ড সিরিজে ফের ভারতীয় জার্সি গায়ে মাঠে নামতে চান ঝুলন।

এ দিকে বাংলার অনূর্ধ্ব-১৬ দলের কোচের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে অরিন্দম দাসকে। তাঁর সহকারী কে হবেন, তা এখনও জানায়নি সিএবি। বাংলার অনূর্ধ্ব-২৫ দলের কোচ প্রণব রায়ের সহকারী করা হয়েছে পার্থসারথী ভট্টাচার্যকে। বাংলার অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কোচ দেবাং গান্ধীর সহকারী হিসাবে নিযুক্ত হয়েছেন সঞ্জীব সান্যাল।

বন্ধ করুন