বাড়ি > ময়দান > SOP-কে থোড়াই কেয়ার, করোনা জুজুকে তুড়ি মেরে ওড়াচ্ছেন ৬৫ বছরের তরুণ অরুণ লাল
সিএবি কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বাংলা কোচ অরুণ লাল।
সিএবি কর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বাংলা কোচ অরুণ লাল।

SOP-কে থোড়াই কেয়ার, করোনা জুজুকে তুড়ি মেরে ওড়াচ্ছেন ৬৫ বছরের তরুণ অরুণ লাল

বোর্ডের দেওয়া অ্যাডভাইসারি পরিবর্তিত হবে ভবিষ্যতে, আশায় অভিষেক ডালমিয়াকে। 

ভারতীয় ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিসিসিআই জানিয়েছে যে ৬০ উর্ধ্ব লোকজন বিশেষত যাদের আগে বড় কোনও অসুখ হয়েছে তারা যেন ট্রেনিং ক্যাম্পে যোগ না দেন। কিন্তু বাংলার কোচ অরুণ লাল সেই নির্দেশিকা মানবেন এমন কোনও ইঙ্গিত মেলেনি। সিএবি-র তরফ থেকে বলা হয়েছে যে তারা আশা করছেন এই এসওপি পাকাপাকি নয়। ফলে আপাতত বাংলার কোচ অরুণ লাল থেকে যাচ্ছেন, তা বলাই যায়। 

গত শনিবার জন্মদিন গেছে তাঁর। ক্যানসারজয়ী বাংলার কোচ বলেন যে তিনি বাড়ি বসে থাকবেন না বোর্ডের নির্দেশিকা সত্ত্বেও। তিনি বলেন আগামী ৩০ বছর কী আমি বাড়ি বসে থাকব! মোদীর উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন যে ৬৯ বছরে যদি প্রধানমন্ত্রী দেশ চালাতে পারে, তাঁকে তো কেউ বাড়িতে থাকতে বলছে না! 

অরুণ লাল বলেন তিনি যাবতীয় সতর্কতা নেবেন কিন্তু বাড়িতে বসবেন না। তিনি বলছেন এখন শারীরিক ভাবে খুব ফিট তিনি। অরুণ লাল বলেন যে ভ্যাকসিন বেরোনোর অনেক আগেই কোভিড পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হয়ে যাবে। 

গত বছর তাঁর কোচিংয়ে তেরো বছর পর ফাইনালে গেছিল বাংলা। তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হবে এমন কিছু শোনেননি, বলে জানান অরুণ। তিনি বলেন অ্যাডভাইসারি পরে আবার বদলাতে পারে। একই সঙ্গে তিনি বলেন যে এটা তাঁকে যোগ দিতে মানা করছে না, শুধু উপদেশ দিচ্ছে না যেতে। অরুণ লাল বলেন ক্রিকেটাররা আগামী মরশুমের জন্য মুখিয়ে আছেন। বিসিসিআই, সরকার ও সিএবি-র সবুজ সঙ্কেত পেলেই তাঁরা মাঠে নেমে পড়বেন। 

অন্যদিকে সিএবি-র প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়া বলেন যে তারা মনে করেন যে এই উপদেশ নেহাতই অস্থায়ী, বয়স্ক মানুষদের কথা মাথায় রেখে। তিনি বলেন যে কোভিড পরিস্থিতি বদলালে অ্যাডভাইসারিও বদলাতে পারে। তবে সরাসরি অরুণ লালই যে বাংলার কোচ থাকবেন, এমন কিছু বলেননি অভিষেক ডালমিয়া। 

 

বন্ধ করুন