বাংলা নিউজ > ময়দান > ফেডারেশনে 'যত দ্রুত সম্ভব' নির্বাচন চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে আর্জি কল্যাণ চৌবের
কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেণ রিজিজুর সঙ্গে ফেডারেশন সভাপতি প্রফুল্ল প্যাটেল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেণ রিজিজুর সঙ্গে ফেডারেশন সভাপতি প্রফুল্ল প্যাটেল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

ফেডারেশনে 'যত দ্রুত সম্ভব' নির্বাচন চেয়ে সুপ্রিম কোর্টে আর্জি কল্যাণ চৌবের

  • ২০১২ সাল থেকে ফেডারেশনের প্রফুল্ল প্যাটেল সভাপতি আছেন। এরপর তিনি সভাপতি থাকলে তা স্পোর্টস কোড বিরোধী হবে।

শুভব্রত মুখার্জি

তিনি একসময় ভারতের অন্যতম শ্রেষ্ঠ গোলকিপার ছিলেন। কলকাতা ময়দানে বেশ সুনামের সঙ্গে খেলেছেন কল্যাণ চৌবে। বর্তমানে তিনি রাজনীতির ময়দানেও নেমেছেন। তবে এবার তিনি সংবাদ শিরোনামে অন্য কারণে।

সর্বভারতীয় ফুটবল ফেডারেশনের (এআইএফএফ) নির্বাচন কবে হবে, তা নিয়ে এখনও কোনও নিশ্চয়তা নেই। এই নিয়ে সংস্থার কোনও কর্তার কাছেও পাওয়া যায়নি সদুত্তর। দীর্ঘদিন নির্বাচন নিয়ে গড়িমসি চলছে। ডিসেম্বরেই শেষ হয়ে যাবে বর্তমান এআইএফএফের কার্যকরী কমিটির মেয়াদ। নির্বাচনের বদলে ইতিমধ্যেই কমিটির মেয়াদ বাড়ানোর ব্যাপারে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন জানিয়েছে এআইএফএফ।

সুপ্রিম কোর্টে এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এআইএফএফের বর্তমান কার্যকরী কমিটির মেয়াদ যাতে না বাড়ানো হয় এবং ‘যত দ্রুত সম্ভবত’ নির্বাচনের আর্জি জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন ভারতীয় জাতীয় দলের প্রাক্তন ফুটবলার কল্যাণ চৌবে।

প্রসঙ্গত ২০১২ সাল থেকে ফেডারেশনের প্রফুল্ল প্যাটেল সভাপতি আছেন। এরপর তিনি সভাপতি থাকলে তা স্পোর্টস কোড বিরোধী হবে। ২০১৭ সালে সুপ্রিম কোর্ট একটি প্রশাসক কমিটি (কমিটি অফ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর) গঠন করেছিল। তাতে আছেন প্রাক্তন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার এস ওয়াই কুরেশি এবং ভাস্কর গঙ্গোপাধ্যায়। স্পোর্টস কোড মেনে ফেডারেশনের সংবিধান তৈরির নির্দেশ দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। কুরেশি জানিয়েছেন, গত বছর ডিসেম্বরের সংবিধানের খসড়া চূড়ান্ত গিয়েছিল। আর চলতি বছরের জানুয়ারিতেই মুখবন্ধ খামে তা শীর্ষ আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে।

বন্ধ করুন