শ্রীনিবাসন গৌড়াকে ট্রায়ালে ডাকল সাই (ছবি সৌজন্য টুইটার @Lovernova1)
শ্রীনিবাসন গৌড়াকে ট্রায়ালে ডাকল সাই (ছবি সৌজন্য টুইটার @Lovernova1)

'বোল্টের থেকেও দ্রুতগামী' নির্মাণকর্মীকে ট্রায়ালে ডাকল SAI

  • অনেকে বলতে থাকেন, ভারতের কোণায় কোণায় এরকম অজস্র প্রতিভা ছড়িয়ে রয়েছে। অনেকে তো আবার টোকিও অলিম্পিকে শ্রীনিবাসনকে ভারতীয় দলে নিতে বিশেষ এন্ট্রির বন্দোবস্ত করে দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেণ রিজিজুকে আর্জিও জানান।

তিনি নাকি উইসেন বোল্টের থেকেও জোরে দৌড়ান! গত কয়েকদিন ধরে কর্নাটকের সেই নির্মাণকর্মীর দৌড়ে মুগ্ধ নেটিজেনরা। এবার সেই বোল্টের থেকেও 'দ্রুতগামী' শ্রীনিবাস গৌড়াকে ট্রায়ালে ডেকে পাঠাল সাই কর্তৃপক্ষ। সাইয়ের বেঙ্গালুরু কেন্দ্রে তাঁকে খুঁটিয়ে দেখবেন সাইয়ের কোচেরা।

সম্প্রতি শ্রীনিবাসনের দৌড়ানোর একটি ভিডিয়ো নেট দুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে দেখা যায়, কর্নাটকের ঐতিহ্যবাহী 'কাম্বালা' (মোষের দৌড়) প্রতিযোগিতার সময় কাদামাখা মাটিতে দৌড়াচ্ছেন শ্রীনিবাস। অনেকে দাবি করেন, ১৪২.৫ মিটার মাত্র ১৩.৬২ সেকেন্ডে পার করেন শ্রীনিবাস। হিসেব অনুযায়ী, ১০০ মিটার দৌড়াতে ৯.৫৫ সেকেন্ড সময় নিয়েছেন তিনি। যা বোল্টের বিশ্বরেকর্ডের (৯.৫৮ সেকেন্ড) থেকেও কম।

পাশাপাশি শ্রীনিবাসের শারীরিক গড়নেও মুগ্ধ হন সকলে। অনেকে বলতে থাকেন, ভারতের কোণায় কোণায় এরকম অজস্র প্রতিভা ছড়িয়ে রয়েছে। অনেকে তো আবার টোকিও অলিম্পিকে শ্রীনিবাসনকে ভারতীয় দলে নিতে বিশেষ এন্ট্রির বন্দোবস্ত করে দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেণ রিজিজুকে আর্জিও জানান।

সেই প্রশংসার ঢেউয়ের মধ্যে শনিবার সকালে টুইট করেন শিল্পপতি আনন্দ মাহিন্দ্রা। রিজিজুকে ট্যাগ করে তিনি বলেন, 'ওঁর শারীরিক গড়নের দিকে একবার দেখুন। আপনারা জানেন, এই ব্যক্তি অ্যাথলেটিক্সে অভাবনীয় উচ্চতায় উঠতে পারেন। এখন রিজিজু ওঁকে (শ্রীনিবাস) ১০০ মিটারের জন্য প্রশিক্ষণের সুযোগ করে দিন নাহলে কাম্বালাকে অলিম্পিকে অন্তর্ভুক্ত করুন। যাই হোক না, আমরা শ্রীনিবাসনের জন্য সোনার পদক চাই।'

মাহিন্দ্রার টুইটে ইতিবাচক সাড়া দেন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী। তিনি টুইট করেন, 'প্রথমসারির সাই কোচেদের কাছে ট্রায়ালের জন্য আমি কর্নাটকের শ্রীনিবাস গৌড়াকে ফোন করব। অলিম্পিক, বিশেষত অ্যাথলেটিক্সের মান নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতার অভাব রয়েছে। যেখানে মানুুষের শরীরের শক্তি ও সহনশীলতা সবকিছুকে ছাপিয়ে যায়। আমি নিশ্চিত করব যে ভারতের কোনও প্রতিভা যেন অপরীক্ষিত হয়ে পড়ে না থাকে।'

তার কিছুক্ষণ পর দিল্লি সাইয়ের তরফে জানানো হয়, ট্রায়ালের জন্য আগামী সোমবার শ্রীনিবাসকে সাইয়ের বেঙ্গালুরুর কেন্দ্রে ডেকে পাঠানো হয়েছে। টুইটে বলা হয়, 'আমরা শ্রীনিবাস গৌড়ার সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। তাঁর ট্রেনের টিকিট কেটে দেওয়া হয়েছে। আগামী সোমবার তিনি সাইয়ের বেঙ্গালুরু কেন্দ্রে আসবেন। সেখানে আমাদের কোচেরা তাঁকে খুঁটিয়ে দেখবেন।'

বন্ধ করুন