বাংলা নিউজ > ময়দান > ক্ষতি হচ্ছে ক্রিকেটের, করোনার বাড়তি সংক্রমণের মাঝেও জৈব বলয় তুলে দেওয়ার দাবিতে সরব পিটারসেন
কেভিন পিটারসেন। ছবি- ইন্সটাগ্রাম।

ক্ষতি হচ্ছে ক্রিকেটের, করোনার বাড়তি সংক্রমণের মাঝেও জৈব বলয় তুলে দেওয়ার দাবিতে সরব পিটারসেন

  • বিরাট কোহলি ও প্রাক্তন ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রীও জৈব বলয়ে থাকতে থাকতে মানসিক ক্লান্তির বিষয়টি নিয়ে সোচ্চার হন।

শুভব্রত মুখার্জি

করোনার কারণে সারা বিশ্ব জুড়ে বাজেভাবে প্রভাবিত হ্চ্ছে ক্রীড়াজগত। করোনার প্রভাব পৃথিবীতে পড়ার পরে প্রথম ওয়েভের ফলে বেশ কয়েকদিন বন্ধ হয়ে গিয়েছিল সব ধরনের খেলাধুলা। ক্রীড়াঙ্গনকে ফের সচল করতে নিয়ে আসা হয় জৈব বলয়ের নয়া পরিকল্পনা। এই বলয়ের মধ্যে খেলোয়াড়, কোচিংস্টাফ সহ সকলে স্বাস্থ্যগত দিক থেকে সুরক্ষিত থাকবেন বলেই মনে করা হয়োছিল। মাঠে যাবেন,খেলবেন ফের হোটেলে ফিরে আসবেন‌, অন্য কোথাও যেতে পারবেন না তারা। হবে নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষাও।

দীর্ঘ একবছরের উপর সময় থাকার পরেও করোনার হাত থেকে মুক্তি না পাওয়ার ফলে জৈব বলয় থেকে এখনও মুক্তি মেলেনি ক্রিকেটারদের। জায়গা বুঝে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে গেলেই জৈব বলয়ে বন্দিদশাতে কাটাতে হচ্ছে সময়। করোনার বাড়বাড়ন্তের ফলে এই বন্দিদশা এখনও অব্যাহত। কেভিন পিটারসেনের মতে জৈব বলয় বিষয়টি ক্রিকেটারদের মন, মানসিকতার উপর বেশ প্রভাব ফেলছে। এর প্রভাব পড়ছে তাদের খেলাতেও। ভারতের টেস্ট অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও প্রাক্তন কোচ রবি শাস্ত্রীও জৈব বলয়ে থাকতে থাকতে মানসিক ক্লান্তির বিষয়টি নিয়ে সোচ্চার হন। 

করোনা সংক্রমণ পুনরায় হু হু করে বাড়লেও, জৈব বলয়ে ক্লান্তির দিকে ইঙ্গিত করে একে একেবারে উঠিয়ে দেওয়ার অনুরোধ জানালেন প্রাক্তন ইংলিশ অধিনায়ক। কেভিন পিটারসেন বিষয়টি নিয়ে নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে টুইট করেন। তিনি লিখেছেন, ‘ভালো ক্রিকেটের অনেক বড় ক্ষতি করছে কঠোর জৈব বলয়। ক্রিকেটের ভালর জন্য ক্রিকেটার ও কোচদের কঠোর জৈব বলয়ের ঘেরাটোপ থেকে যত দ্রুত সম্ভব মুক্তি দেওয়া হোক। এই বলয় সবকিছু ধ্বংস করে দিচ্ছে। ক্রিকেটার ও কোচরা এর উপর তিতি বিরক্ত হয়ে গিয়েছেন৷'

বন্ধ করুন