বাংলা নিউজ > ময়দান > কেন যে লোকে ঠুকঠুক করে খেলত, নাম না করে ফের প্রাক্তনদের নিশানা করলেন আইপিএল তারকা পিটারসেন
কেভিন পিটারসেন। ছবি- গেটি ইমেজস।
কেভিন পিটারসেন। ছবি- গেটি ইমেজস।

কেন যে লোকে ঠুকঠুক করে খেলত, নাম না করে ফের প্রাক্তনদের নিশানা করলেন আইপিএল তারকা পিটারসেন

  • ২০১৫ বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেওয়ার পর ২০১৯ বিশ্বকাপ জিতে নেয় ইংল্যান্ড।

আর মাত্র কয়েক ঘন্টার অপেক্ষা, তারপরেই শুরু হতে চলেছে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেটে বোর্ডের মস্তিষ্কপ্রসূত ১০০ বলের টুর্নামেন্ট ‘দ্য হান্ড্রেড’। ইংল্যান্ডের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসেন মনে করছেন এইরকম টুর্নামেন্টের চিন্তাভাবনা আগে থেকে করলে ইংল্যান্ড সাদা বলের ক্রিকেটে আরও উন্নত জায়গায় বহু আগেই পৌঁছতে পারত।

Daily Mail-কে পিটারসেন জানান, ‘একশো শতাংশ (দ্যা হান্ড্রডে যদি ইংল্যান্ডে আরও আগে চালু হত তবে সাদা বলের ক্রিকেট নিজেদের উন্নতি আরও আগেই করতে পারত ইংল্যান্ড)। আমি এমন যুগে খেলেছি যেথানে আমাদের দল থেক হাতেগোনা চার-পাঁচ়জন আইপিএল খেলত। ইংল্যান্ডের বেঞ্চে বসে যে সব ব্যাটসম্যান বল ব্লক করে তাঁদের দলে খেলতে দেখে আমরা সকলেই বিরক্ত হয়ে যেতাম। তবে বর্তমানে প্রায় সকল প্রথম সারির ইংল্যান্ড দলের সদস্যরাই আইপিএল খেলে। বোর্ডের চিন্তাধারাটাই এখন পুরো বদলে গিয়েছে।’

ঐতিহাসিকভাবে ইংল্যান্ড বরাবরই প্রথাগত টেস্ট ক্রিকেটের ওপর অধিক গুরুত্ব দিয়ে এসেছে। কিন্তু ২০১৫ বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর নড়চড়ে বসে ইসিবি। নিজেদের ক্রিকেটশৈলীতে আমূল পরিবর্তন আনেন ইংল্যান্ড ক্রিকেটার ও এবং ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, সবেতেই তা লক্ষ্য করা যায়।

মাত্র চার বছরের মধ্যে ঘুরে দাঁড়িয়ে অধিনায়ক ইয়ন মর্গ্যানের অনুপ্রেরণায় আক্রামণাত্মক ক্রিকেট খেলে বিশ্বকাপও নিজেদের নামে করে। তবে আরও আগে থেকে আইপিএলের মতো টুর্নামেন্ট খেলে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে আরও জোড় দিলে বর্তমানে ইংল্যান্ড দল আরও ভাল জায়গায় থাকতে পারত বলে খানিকটা আফসোসের সুরেই জানান পিটারসেন।

বন্ধ করুন