বাংলা নিউজ > ময়দান > কোহলি-শাস্ত্রীর স্বেচ্ছাচারিতা থামাতেই মেন্টর ধোনিকে আনা হয়েছিল, দাবি ভারতীয় প্রাক্তনীর
রবি শাস্ত্রী ও বিরাট কোহলি এবং মহেন্দ্র সিং ধোনি।
রবি শাস্ত্রী ও বিরাট কোহলি এবং মহেন্দ্র সিং ধোনি।

কোহলি-শাস্ত্রীর স্বেচ্ছাচারিতা থামাতেই মেন্টর ধোনিকে আনা হয়েছিল, দাবি ভারতীয় প্রাক্তনীর

  • ভারতের প্রাক্তন পেসার অতুল ওয়াসনের দাবি, দল নির্বাচন নিয়ে কোহলি এবং শাস্ত্রীর স্বেচ্ছাচারিতা নিয়ন্ত্রণ করতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ধোনিকে পরামর্শদাতা হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছিল। যাতে বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক একটা ভারসাম্য রক্ষা করতে পারেন।

মহেন্দ্র ধোনিকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ভারতীয় ক্রিকেট দলের পরামর্শদাতা হিসেবে মনোনীত করা হলে পুরো দেশ উচ্ছ্বসিত হয়েছিল। কিন্তু ভারত সেমিফাইনালে যাওয়ার আগেই আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে গেলে এইউচ্ছ্বাস বেশি দিন স্থায়ী হয়নি। এই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ছিল বিরাট কোহলি ও রবি শাস্ত্রীর, অধিনায়ক-কোচ জুটির শেষ টুর্নামেন্ট।

বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় এবং সচিব জয় শাহ ধোনিকে দলের পরামর্শদাতা হিসাবে নিয়োগ করার পিছনে কারণ হিসেবে বলেছিলেন, আইসিসি টুর্নামেন্টে ধোনির অনবদ্য রেকর্ডের পাশাপাশি তাঁর অভিজ্ঞতা, তাঁর জ্ঞান ভারতীয় ক্রিকেটের জন্য প্লাস পয়েন্ট হবে।

তবে ভারতের প্রাক্তন পেসার অতুল ওয়াসনের দাবি, দল নির্বাচন নিয়ে কোহলি এবং শাস্ত্রীর স্বেচ্ছাচারিতা নিয়ন্ত্রণ করতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ধোনিকে পরামর্শদাতা হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছিল। যাতে বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক একটা ভারসাম্য রক্ষা করতে পারেন।

সিএনএন নিউজ ১৮-তে ওয়াসন পরিষ্কার ভাবে বলেছেন, ‘কোহলি-শাস্ত্রী জুটি নিজেদের ইচ্ছামত যাঁকে খুশি খেলাচ্ছিল, দল গঠন করছিল। গোটা দলের রাশই ছিল দুজনের হাতে। এমনটাই সকলে ভাবছিল। আসলে দলে ভারসাম্য আনার জন্য ধোনিকে নিয়ে আসা হয়েছিল।’ এর সঙ্গেই তিনি যোগ করেছেন, ‘শাস্ত্রী-কোহলি ভারতীয় ক্রিকেটকে নিয়ন্ত্রণ করছিলেন। তাই বোর্ড এমন কাউকে আনতে চেয়েছিল, যাঁর ইনপুট দলের কাজে আসে। সেই সঙ্গে দলে ভারসাম্যও বজায় থাকে।’

কোহলিকে সরিয়ে ওয়ানডে ক্যাপ্টেন হিসাবে রোহিতের নাম ঘোষণা করার মধ্যেও বোর্ডের কিছু ভুল দেখছেন না ওয়াসন। বলেছেন, ‘ভারতে কেউ যদি বেশি দিন ক্রিকেট খেলেন, তিনি নিজেকে ঈশ্বরের সমতুল্য ভাবতে থাকেন। সব সময়ে বিশেষ ট্রিটমেন্ট প্রত্যাশা করে থাকেন সকলের কাছ থেকে। এই সিস্টেমটাই আসলে বদলানো উচিত।’

বন্ধ করুন