বাংলা নিউজ > ময়দান > ২০২৩ বিশ্বকাপের সম্ভাব্য দলে কাদের রাখলেন না শ্রীকান্ত?

২০২৩ বিশ্বকাপের সম্ভাব্য দলে কাদের রাখলেন না শ্রীকান্ত?

ভারতীয় দল। ছবি- এএফপি 

বছরের শেষ দিকে ভারতের মাটিতে বসবে ওডিআই বিশ্বকাপের আসর। আর সেই বিশ্বকাপের জন্য এখন থেকেই মাঠে নেমে পড়েছে বিসিসিআই। ইতিমধ্যেই কুড়ি জনের দল বেছে নিয়েছে বোর্ড। তবে তা প্রকাশ্যে আনেনি। কিন্তু বিশ্বকাপের কুড়ি জনের দলে গিল এবং শার্দুলকে রাখলেন না শ্রীকান্ত।

চলতি বছরের শেষে ভারতের মাটিতে বসবে ওডিআই বিশ্বকাপের আসর। ঘরের মাঠে বিশ্বকাপ জিততে মরিয়া ভারত। ২০১১ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। তারপর আর কোনও বিশ্বকাপ জিততে পারেনি ভারত। সম্প্রতি ভারতের খারাপ পারফরম্যান্স চিন্তায় ফেলেছে বিসিসিআইকে।

তাই বিশ্বকাপ শুরুর আগে প্রাথমিকভাবে ২০ জন খেলোয়াড়কে বিশ্বকাপের জন্য বেছে নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। তবে তা প্রকাশ্যে আনা হয়নি। স্বাভাবিকভাবেই জল্পনা চলছে কারা কারা এই ২০ জনের মধ্যে থাকতে পারেন। অনেক প্রাক্তন ক্রিকেটার এই বিষয়ে তাদের মতামত জানিয়েছেন। এবার মুখ খুললেন ভারতের প্রাক্তন নির্বাচক ও ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য কৃষ্ণমাচারী শ্রীকান্ত।

একটি অনুষ্ঠানে সাক্ষাৎকারের সময় তিনি জানান, তাঁর মতে কোন দুই জন ক্রিকেটাক কুড়িজনের সম্ভাব্য তালিকা থেকে বাদ পড়বে। তিনি বলেন, ‘দুইজন খেলোয়াড় আমার তালিকায় থাকবে না। তারা হলেন শুভমন গিল এবং শার্দুল ঠাকুর।’ গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রস্তুতি জন্য যখন রোহিত শর্মাকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল। সেই সময় ভারতের একদিনের দলে জায়গা পেয়েছিলেন গিল। বাংলাদেশের বিরুদ্ধেও ওয়ান ডে দলে জায়গা পাননি তিনি। এখন শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে শিখর ধাওয়ানকে জায়গা না হওয়ায় তিনি দলের সঙ্গে রয়েছেন। অন্যদিকে, র্শাদুল ঠাকুর বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওয়ানডে খেলেছেন কিন্তু শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দলে জায়গা পাননি।

শ্রীকান্ত সম্ভাব্য ২০ জনের তালিকায় বিশেষ করে সিনিয়র প্লেয়ারদের উপস্থিতির কথা বলেছেন। ২০১১ সালের বিশ্বকাপের দলের উদাহরণ বারবার টেনে এনেছেন। তিনি বলেন, ‘দলের যদি মিডিয়াম পেসার দরকার হয় তাহলে আমাদের হাতে রয়েছে বুমরাহ, উমরান মালিক, মহম্মদ সিরাজ, আর্শদীপ সিং ও মহম্মদ শামি। এদের মধ্যে চারজন বোলার যথেষ্ট। এবং আমি যদি সিলেক্টর কমিটির প্রধান হতাম তাহলে হুডাকে নিতাম। আমি মনে করি এই খেলোয়াড়রাই ম্যাচ জেতাবে। ম্যাচ জেতাটাই আসল। দলে ইউসুফ পাঠানের মত একজনকে দরকার যে একার হাতে ম্যাচ ঘুরিয়ে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এই সব খেলোয়াড়রা যদি দশটার মধ্যে তিনটি ম্যাচ জেতায় সেটাই যথেষ্ট। আমি ধারাবাহিকতা চাই না। ম্যাচ জিততে চাই। এই ভারতীয় দলে ঋষভের মতো খেলোয়াড়রা আছে যারা আপনাকে ধারাবাহিকতা দেবে না। একার হাতে ম্যাচ ঘুরিয়ে দেবে।’

বন্ধ করুন