বাংলা নিউজ > ময়দান > সূর্যকে ব্যাটিং শিখিয়েছি, এবার বোলিং টিপস দিলাম কুলদীপকে, রসিকতা চাহালের

সূর্যকে ব্যাটিং শিখিয়েছি, এবার বোলিং টিপস দিলাম কুলদীপকে, রসিকতা চাহালের

ম্যাচের পর যুজবেন্দ্র চাহাল এবং কুলদীপ যাদব। ছবি- বিসিসিআই 

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় ওডিআই ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন কুলদীপ যাদব। তিন উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরাও হয়েছেন তিনি। এই সাফল্যের পিছনে কার হাত রয়েছে। তা প্রকাশ্যে আনলেন ভারতীয় দলের এই স্পিনার। 

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে সুযোগ পেয়েই নিজের জাত চিনিয়ে ছিলেন কুলদীপ যাদব। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৮টি উইকেট নিয়ে ম্যাচের সেরা হয়েছিলেন বাঁহাতি এই স্পিনার। কিন্তু ঠিক পরের ম্যাচেই তাঁকে দলের বাইরে রাখা হয়েছিল। রাহুল দ্রাবিড় এবং টিম ম্যানেজেমেন্টের এমন সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট মহল। শুধু তাই নয়, সমালোচনার মুখেও পড়তে হয় তাদের। 

শ্রীলঙ্কা সিরিজের পর ইডেনে ভারত-শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ওডিআই ম্যাচে সুযোগ হয় কুলদীপের। অবশ্য যুজবেন্দ্র চাহালের চোট কুলদীপকে দলে ফেরায়। আর নিজের চেনা মাঠে দাপটের সঙ্গে বোলিং করে গেলেন ভারতীয় এই স্পিনার। ১০ ওভার হাত ঘুরিয়ে মাত্র ৫১ রান দিয়ে নিয়েছেন তিনটি উইকেট। বলা ভালো ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে এই জয়ের পিছনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে কুলদীপ।

সেই সঙ্গে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২০০টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। ম্যাচ শেষের পর চাহাল কুলদীপের সাক্ষাৎকার নেন। সেখানে কুলদীপ বলেন, 'আমি ২০০ উইকেট নিয়েছি একেবারেই খেয়াল ছিল না। আমি নিজেও জানতাম না। তবে এটা ঠিক দেশের হয়ে ২০০ উইকেট নিতে পেরে ভালো লাগছে। দেশের হয়ে খেলা সত্যি আমার কাছে গর্বের বিষয়।'

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টেস্টের পর শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ওডিআইতে সুযোগ পেয়েছেন কুলদীপ। মাঝে তাঁকে আর দেখা যায়নি। এই ম্যাচে কী পরিকল্পনা ছিল, সেই প্রশ্ন করেন চাহাল। উত্তরে কুলদীপ বলেন, 'আমি সেই ভাবে কোনও পরিকল্পনা করে খেলতে নামিনি। তবে এটা মাথায় ছিল, ইডেনের উইকেটে স্পিনাররা খুব একটা সাহায্য় পায় না। ব্যাটারদের জন্য এই পিচ। তাই আমি উইকেট টু উইকেট বল রাখার চেষ্টা করেছি। বেশির ভাগ বল গুড লেংথে করে গিয়েছি। আর তাতেই উইকেট পেয়েছি।'

এই ম্যাচে তিনটি উইকেট নিয়েছেন কুলদীপ। তিনটি উইকেটের মধ্যে কোনটি সেরা প্রশ্ন করেন চাহাল। উত্তরে তিনি বলেন, 'দাসুন শানাকার উইকেটটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। টি-টোয়েন্টি এবং প্রথম ওডিআই ম্যাচে যেভাবে খেলেছিল ও তাতে আমার কাছে ওর উইকেট নেওয়াটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। সেই জন্য আমি বলব দাসুনের উইকেটটা স্পেশাল এই ম্যাচে।'

শুধু বল নয় ব্যাট হাতেও দুটি বাউন্ডারির সৌজন্যে ১০ রান করেন কুলদীপ। ব্যাটিং প্রসঙ্গে চাহাল তাঁকে প্রশ্ন করলে কুলদীপ বলেন, 'আমি সব সময় চাই, যদি ব্যাট করতে আসি তাহলে অন্তত দলকে ২৫-৩০ রান করে এগিয়ে দিতে। এই ম্যাচে রাহুল ভাই ছিল। সেই জন্য আত্মবিশ্বাসও ছিল। যাই হোক এই ম্যাচে অনেক কিছু শিখলাম।'

সাক্ষাৎকার পর্ব শেষ করার আগে চাহালকে ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি কুলদীপ। তিনি বলেছেন, 'তোমাকে ধন্যবাদ জানাতে চাই কারণ, এই ম্যাচে তুমি আমাকে অনেক সাহায্য় করেছ। মাঠের বাইরে থেকে টিপস দিয়েছ। ছোট ছোট টিপস বড় সাফল্য এনে দেয়। তুমি টেস্ট, টি-টোয়েন্টি এবং ওডিআই খেলেছ। আমি টেস্টের পর একেবারে ওডিআই ম্যাচে খেলছি। তুমি জানতে কীভাবে বল করতে হবে। সেই মতো আমাকে টিপস দিয়েছিলে। তাই তোমারে আমি ধন্যবাদ জানাই। তোমার থেকে অনেক কিছু শিখতে পারি আমি। তবে এটাই খারাপ লাগছে যে, দীর্ঘদিন আমরা এক সঙ্গে মাঠে খেলছি না।' প্রত্যুত্তরে চাহাল বলেন যে সূর্যকে ব্যাটিং টিপস দেওয়ার পর এখন কুলদীপকে বোলিং টিপস দিচ্ছি। প্রসঙ্গত, তাঁর ব্যাটিং একেবারেই কহতব্য নয়। সেই কারণেই নিজেকে নিয়ে মস্করা করেন চাহাল। আইপিএলের সময় বলেছিলেন যে বাটলারকে টিপস দিচ্ছেন তিনি। 

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বন্ধ করুন