বাংলা নিউজ > ময়দান > অনুষ্টুপ, অভিমন্যুদের দায়িত্বে থাকলেন লক্ষ্মণ, বাংলার দায়িত্বে অরুণ লালই
ভিভিএস লক্ষ্মণ।
ভিভিএস লক্ষ্মণ।

অনুষ্টুপ, অভিমন্যুদের দায়িত্বে থাকলেন লক্ষ্মণ, বাংলার দায়িত্বে অরুণ লালই

  • জোর গুজব রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ানোর পর বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক লক্ষ্মীরতন শুক্লা সম্ভবত বাংলার অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ হতে চলেছেন। পাশাপাশি সৌরাশিস লাহিড়িকে সিনিয়র দলের সহকারী কোচ হিসেবে নিযুক্ত করা হচ্ছে।

বাংলার ক্রিকেটের ব্যাটসমস্যানদের পরামর্শদাতা হিসেবে চুক্তি বাড়ল ভিভিএস লক্ষ্মণের। ২০২০ সাল থেকেই বাংলার ব্যাটসম্যানদের দায়িত্বে রয়েছেন তিনি। এই বছর অক্টোবর পর্যন্ত তাঁর চুক্তি ছিল। সেই চুক্তিই বাড়ানো হয়েছে ২০২২ মার্চ পর্যন্ত। এ দিকে কোচ হিসেবে অরুণ লালের চুক্তি আগেই বাড়ানো হয়েছে।

এ দিকে জোর গুজব রাজনীতি থেকে সরে দাঁড়ানোর পর বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক লক্ষ্মীরতন শুক্লা সম্ভবত বাংলার অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ হতে চলেছেন। পাশাপাশি সৌরাশিস লাহিড়িকে সিনিয়র দলের সহকারী কোচ হিসেবে নিযুক্ত করা হচ্ছে। মূলত অনূর্ধ্ব-২৩ দলের কোচ হিসেবে ভাল পারফরম্যান্সের কারণে সৌরশিসকে প্রোমোট করা হয়েছে।

বাংলার প্রাক্তন স্পিডস্টার শিবশঙ্কর পালকে আবার বাংলার সব স্কোয়াডের বোলিং কোচ হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে। সিএবি-র তরফে বলা হয়েছে, ‘ভারতের প্রাক্তন তারকা ব্যাটসম্যান ভিভিএস লক্ষ্মণের চুক্তি বাড়ানো হল। অক্টোবর ২০২১ পর্যন্ত তাঁর চুক্তি ছিল। সেটা বাড়ানো হয়েছে মার্চ ২০২২ পর্যন্ত। উৎপল চট্টোপাধ্যায়কে বাংলার সব ফর্ম্যাটের স্পিনিং বোলিং কোচ হিসেবে নুিযুক্ত করা হয়েছে।’ এর আগেই অবশ্য সিএবি ঘোষণা করেছিল, ২০২১-'২২ মরশুমের জন্য অরুণ লালই বাংলার প্রধান কোচের দায়িত্বে থাকবেন।

এ ছাড়াও বাংলার মেয়েদের হেড কোচ হিসেবে ঋতুপর্ণা রায়ই দায়িত্বে থাকবেন। চরণজিৎ সিং সহকারী কোচের দায়িত্ব পালন করবেন বলে জানা গিয়েছে। সিএবি প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়া বলেছেন, ‘প্রাক্তন যে সমস্ত ক্রিকেটাররা নতুন দায়িত্ব পেয়েছেন, তাঁদের আমি এই সংস্থার প্রতিনিধি হিসেবে শুভেচ্ছা জানাতে চাই। এবং আমি জানি তাঁরা তাঁদের অভিজ্ঞতা বাংলা ক্রিকেটকে সাহায্যের জন্য ভাগ করে নেবে। যাতে নতুন মরশুমে বাংলার ক্রিকেট সাফল্য পায়।’

সিএবি-র যুগ্মসচিব স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায় আবার বলেছেন, ‘আমরা যাঁদের সঙ্গে নতুন চুক্তি করেছি, তাঁদের প্রতিভা এবং যোগ্যতার কথা মাথায় রেখেই করেছি। আমরা তাঁদের সঙ্গেই চুক্তি করেছি, যাঁদের উপযুক্ত মনে করেছি। তাঁদের হাত ধরেই বাংলার ক্রিকেটে উন্নতি হবে। যাঁরা নতুন যোগ দিচ্ছে, সকলকে শুভেচ্ছা জানাই এবং আশা রাখছি, তাঁরা নিজেদের সেরাটা দিয়ে বাংলাকে সাফল্য এনে দেবে।’

বন্ধ করুন