বাংলা নিউজ > ময়দান > জুটি বাঁধছেন লক্ষ্মী-ডব্লিউভি রামন, শিরোপার খরা কাটানোর আশায় বাংলা ক্রিকেট
বাংলা দলের কোচিং দায়িত্ব তুলে দেওয়া হবে লক্ষ্মীরতন শুক্লার কাঁধে

জুটি বাঁধছেন লক্ষ্মী-ডব্লিউভি রামন, শিরোপার খরা কাটানোর আশায় বাংলা ক্রিকেট

  • ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গলের (সিএবি) তরফে বাংলা দলের প্রশিক্ষকের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা প্রাক্তন মন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লর কাঁধে। আর তিনি জুটি বাঁধছেন আরেক প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ডব্লিউভি রামনের সঙ্গে। দীর্ঘদিন বাংলা দলের ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব নিচ্ছেন রামন।

শুভব্রত মুখার্জি: বাংলা ক্রিকেটে সদ্য শেষ হয়েছে অরুণ লালের জমানা। তার জমানাতে রঞ্জি ফাইনাল, সেমিফাইনালে পৌঁছালেও রঞ্জি ট্রফির শিরোপা জয়ের খরা তারা কাটাতে পারেনি। তবে এবার সেই খরা কাটাতে বদ্ধপরিকর টিম বাংলা। আর সেই লক্ষ্যেই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গলের (সিএবি) তরফে বাংলা দলের প্রশিক্ষকের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা প্রাক্তন মন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লর কাঁধে। আর তিনি জুটি বাঁধছেন আরেক প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার ডব্লিউভি রামনের সঙ্গে। দীর্ঘদিন বাংলা দলের ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব নিচ্ছেন রামন।

আরও পড়ুন… বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমসের ভারতীয় জিমন্যাস্টিক্স দলের কোচ বিশ্বেশ্বর নন্দী

প্রসঙ্গত ডব্লিউভি রামনের কোচিংয়েই ভারতীয় সিনিয়র মহিলা দল ২০১৭ ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালে খেলেছিল। দীর্ঘদিনের কোচিংয়ের অভিজ্ঞতা রয়েছে রামনের। ঘরোয়া ক্রিকেটের কিংবদন্তি কোচ চন্দ্রকান্ত পন্ডিতের মতোই ক্ষুরধার বুদ্ধির অধিকারী রামন। আর তা কাজে লাগিয়েই এবার ঘরোয়া ক্রিকেটে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে বসার অপেক্ষায় বাংলার ক্রিকেট। বলা‌‌ ভালো ব্যাটিং পরামর্শদাতা হিসেবে বাংলায় কামব্যাক ঘটল ডব্লিউভি রামনের। সিএবি সূত্রে যা খবর সিনায়র দলের সহকারী কোচ সৌরাশিস লাহিড়ীকে বাংলার অনূর্ধ্ব-২৩ বা ২৫ দলে ফেরত আনা হতে পারে।

আরও পড়ুন… বার্মিংহাম কমনওয়েলথ গেমসের ভারতীয় জিমন্যাস্টিক্স দলের কোচ বিশ্বেশ্বর নন্দী

উল্লেখ্য মঙ্গলবার সিএবির তরফে সন্ধেবেলা আনুষ্ঠানিকভাবে হেড কোচ হিসেবে লক্ষ্মীরতন শুক্লর নাম ঘোষণা করা হবে। এর আগে দুই দফায় বাংলার কোচের দায়িত্ব সামলেছেন রামন। গত তিন বছর জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমির ব্যাটিং কোচ, ভারতের মহিলা সিনিয়র দলের কোচ হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন রামন। উল্লেখ্য ২০১০ সালে রামনের কোচিংয়ে সৈয়দ মুস্তাক আলি ট্রফি জিতেছিল বাংলা। ২০১২ সালেই রামনের প্রশিক্ষণে মুম্বইকে হারিয়ে বিজয় হাজারে ট্রফি জিতেছিল বাংলা।

বন্ধ করুন