বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিওতে অষ্টম অলিম্পিক খেলবেন, আত্মবিশ্বাসী লিয়েন্ডার
লিয়েন্ডার পেজ
লিয়েন্ডার পেজ

টোকিওতে অষ্টম অলিম্পিক খেলবেন, আত্মবিশ্বাসী লিয়েন্ডার

  • ইতিহাসের খাতায় নাম উঠবে কলকাতার আদরের লি'র।

১৯৯৬ সালের আটলান্টা অলিম্পিক ভারতীয় ক্রীড়া সমর্থকদের মনের মণিকোঠায় এখন ও গেঁথে যে ক্রীড়াবিদের জন্য, তার নাম লিয়েন্ডার পেজ। যিনি দেশের জার্সিতে রাকেট হাতে খেলতে নামলে যেন 'রুদ্রমূর্তি' ধরেন। আটলান্টা অলিম্পিকে ভারত একেবারে শেষ দিনে ওই অলিম্পিকে তাদের একমাত্র পদকটি পায়। ব্রাজিলের ফার্নান্দো মেলিজেনিকে হারিয়ে চরম লড়াই করে সেবার ভারতকে ব্রোঞ্জ পদক এনে দিয়েছিলেন কলকাতার আদরের 'লি'। তারপর গঙ্গা দিয়ে বহু জল বয়ে গেছে।

বয়স যত বেড়েছে তত পাল্লা দিয়ে তার খেলা ক্ষুরধার হয়েছে। একের পর এক গ্র্যান্ড স্লামে সাফল্যের ফুল ফুটিয়েছেন তিনি। কখন ও মহেশ ভূপতিকে পার্টনার করে তো কখন ও কিংবদন্তী মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা,মার্টিনা হিঙ্গিসদের পার্টনার করে কাঁপিয়েছেন কোর্ট। নেটের সামনে তার ভলির ক্ষিপ্রতায় কুপোকাত হয়েছে একাধিক বিপক্ষ খেলোয়াড়।

২০১৯ সালের ২৫ শে ডিসেম্বর লিয়েন্ডার ঘোষনা দিয়েছিলেন 'ওয়ান লাস্ট রোর' ট্যাগ লাইনের অর্থাৎ তার প্রফেশনাল খেলোয়াড় হিসেবে শেষ বছরে ২০২০ সালের অলিম্পিক খেলে শেষ করতে চেয়েছিলেন তিনি। করোনার কারণে লিয়েন্ডারের সেই ইচ্ছাপূরণে সময় লাগছে বেশি।  টোকিও অলিম্পিক ইতিমধ্যেই একবছর পিছিয়ে ২০২১ সালে করে দেওয়া হয়েছে। তবে তাতে একটুও দমে যাননি লি। 

তিনি আজ শুক্রবার কলকাতার বুকে এক অনুষ্ঠানে জানান রেকর্ড ৮ম অলিম্পিকে টানা খেলার ব্যাপারে তিনি নিজেকে কঠোর অনুশীলনে ইতিমধ্যেই মগ্ন করেছেন। তিনি জানান, ' আমরা কেউ এতবড় অতিমারীর জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত ছিলাম না। এই ঘটনা আমাদের আত্ম উপলব্ধি করতে শিখিয়েছে।এত লম্বা ব্রেকের পরে আমি খুশি।আমি মানসিকভাবে, শারীরিকভাবে একেবারে প্রস্তুত। আমার কাছে এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ যে ভারতের নাম যাতে সবসময় ইতিহাসের পাতায় জ্বলজ্বল করে। সেই কারণেই ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে আমি ভারতের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছি। পরপর ৭টি অলিম্পিকে খেলার রেকর্ড ইতিমধ্যেই আমার এবং আমার দেশের দখলে রয়েছে এবং আমি মনে করি টোকিওতে সেই রেকর্ডকে বাড়িয়ে আমি ৮টি টানা অলিম্পিক খেলার রেকর্ডে নিয়ে যেতে পারব।'

বন্ধ করুন