বাংলা নিউজ > ময়দান > LPL 2020: বুড়ো হাড়ে ভেল্কি শোয়েবের, শিরোপা জয় ভারতীয় সহকারী কোচের দলের
জয়ের পর উচ্ছ্বসিত জাফনা স্ট্যালিয়ন্স। (ছবি সৌজন্য ফেসবুক, এলপিএল)
জয়ের পর উচ্ছ্বসিত জাফনা স্ট্যালিয়ন্স। (ছবি সৌজন্য ফেসবুক, এলপিএল)

LPL 2020: বুড়ো হাড়ে ভেল্কি শোয়েবের, শিরোপা জয় ভারতীয় সহকারী কোচের দলের

  • ৩৮ বছরেও অলরাউন্ড পারফরম্যান্স শোয়েব মালিকের।

শুভব্রত মুখার্জি

এই মরশুমেই শুরু হয়েছে লঙ্কা প্রিমিয়ার লিগ অর্থাৎ এলপিএল। নানা বাধা বিপত্তি কাটানোর পরেই তবে ২২ গজে গড়িয়েছে বল। বুধবার হয়ে গেল প্রথম এলপিএলের ফাইনাল।

প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত এলপিএলের শিরোপা জিতল জাফনা স্ট্যালিয়ন্স। বুধবার অনুষ্ঠিত ফাইনালে পাকিস্তানের শোয়েব মালিকের অলরাউন্ড পারফরম্যান্সে ভর করে গল গ্ল্যাডিয়েটর্সকে ৫৩ রানে হারিয়ে দিয়ে চ্যাম্পিয়নশিপের মুকুট পেল জাফনা স্ট্যালিয়ন্স। যে দলের সহকারী কোচ হলেন প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার হেমাঙ্গ বাদানি।

হাম্বানটোটাতে মাহিন্দ্রা রাজাপাক্সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১৮৮ রান করে জাফনা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে নয় উইকেটে ১৩৫ রানের বেশি করতে পারেননি গলের ব্যাটসম্যানরা।

১৮৯ রানের লক্ষ্যমাত্রা তাড়া করতে নেমে সাত রানে তিন উইকেট হারিয়ে শুরুতেই চাপে পড়ে গিয়েছিল গল। অধিনায়ক ভানুকা রাজাপাক্সের ঝোড়ো ইনিংসে চাপ কিছুটা কমে। ভানুকা ১৭ বলে ৪০ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলার ফলে চতুর্থ উইকেটে ওঠে ৫৫ রান।

তবে রান রেটের চাপ গলের ব্যাটসম্যানদের উপর সবসময় ছিল। সেখান থেকে তাঁরা বেরোতে পারেননি। দ্রুত রান তুলতে গিয়ে নিয়মিত উইকেট হারায় গল। আজম খান ১৭ বলে ৩৬ রান করে আউট হন। শেষ পর্যন্ত নয় উইকেটে ১৩৫ রানের বেশি করতে পারেনি গল গ্ল্যাডিয়েটর্স। জাফনার হয়ে শোয়েব মালিক ও উসমান শেনওয়ারি দু’টি করে উইকেট নেন।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে জাফনার দুই ওপেনার জনসন চার্লস ও আভিস্কা ফার্নান্দো ৪৪ রানের জুটি গড়েন। চার্লস ২৭ রান করেন। চারিথ আসালাঙ্কা (১০) ও আভিস্কা ফারনান্দো (২৭) দলকে টেনে আউট হওয়ার সময় দলের স্কোর ছিল ৭০ রানে তিন উইকেট। ৩৮ বছরের শোয়েব মালিক ৩৫ বলে ৪৬ রান করেন। ধনঞ্জয় ডি সিলভা ও থিসারা পেরেরার ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ৬ উইকেটে ১৮৮ রান করতে সমর্থ হয় জাফনা। ধনঞ্জয় ২০ বলে ৩৩ রান করে আউট হলেও পেরেরা ১৪ বলে ৩৯ রানে অপরাজিত থাকেন। গল গ্লাডিয়েটর্সের হয়ে ধনঞ্জয় লাকশান তিনটি উইকেট নিয়ে ৫৩ রানে জয় সুনিশ্চিত করেন।

বন্ধ করুন