বাংলা নিউজ > ময়দান > সুপার লিগ বিতর্কের জেরে ট্রেনিং গ্রাউন্ড ঘেরাও ম্যান ইউনাইটেড সমর্থকদের
ক্যারিংটানে পোস্টার হাতে ক্ষুব্ধ ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড সমর্থক। ছবি- টুইটার
ক্যারিংটানে পোস্টার হাতে ক্ষুব্ধ ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড সমর্থক। ছবি- টুইটার

সুপার লিগ বিতর্কের জেরে ট্রেনিং গ্রাউন্ড ঘেরাও ম্যান ইউনাইটেড সমর্থকদের

ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের আমেরিকান মালিক জোয়েল গ্লেজার্স সুপার লিগের সহ-সভাপতি নিযুক্ত হয়েছিলেন।

প্রবল বিতর্ক ও সমর্থকদের প্রতিবাদের জেরে ইতিমধ্যেই ইউরোপিয়ান সুপার লিগ থেকে নাম তুলে নিয়েছে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড সহ প্রিমিয়র লিগের 'বিগ সিক্স'। তবে বিতর্ক যেন থামার নামই করছে না। ক্লাব কর্তাদের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রায় প্রতিটি ক্লাবের সমর্থকরাই মালিকদের বিরুদ্ধে রাস্তায় নেমেছে। সেই চিত্রই আবার ফুটে উঠল বৃহস্পতিবার সকালে।

সমর্থকরা বৃহস্পতিবার সকালে প্ল্যাকার্ড হাতে ইউনাইটেডের ট্রেনিং গ্রাউন্ড ক্যারিংটনে প্রবেশ করে। মাঠে প্রবেশের দু'টি পথই বন্ধ করে রিসেপসন হয়ে দলের ট্রেনিং পিচের দিকে অগ্রসর হন তাঁরা, তবে কোনও বিল্ডিংয়ে অনুপ্রবেশ করেননি। বিভিন্ন প্ল্যাকার্ডে গ্লেসারদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ দেখান সমর্থকরা। কোথাও লেখা ‘গ্লেজার্স আউট’ তো কোথাও জার্মান বুন্দেশলিগার অনুকরণে ‘৫০+১ নিয়ম’ লাগু করার দাবি জানানো হয়। ইউনাইটেডের আমেরিকান মালিক জোয়েল গ্লেজার্স সুপার লিগের সহ-সভাপতি নিযুক্ত হয়েছিলেন। এটাকে ফুটবলের আমেরিকিকরণের প্রচেষ্টা বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ঘটনাস্থলে পুলিশও ডাকা হয়।

অবশেষে কোচ ওলে গানার সোল্কজায়ের, সহকারী কোচ মাইকেল ক্যারিক, টেকনিলাল ডিরেক্টর ড্যারেন ফ্লেচার ও নিমানিয়া ম্যাটিচ তাঁদের বিক্ষোভ শান্ত করেন। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নিয়েছে ইউনাইটেড ক্লাব কর্তৃপক্ষ। এক বিবরণে ক্লাবের তরফে জানানো হয়, ‘আজ সকাল নটার আশেপাশে একদল সমর্থক ক্যারিংটনে ঢুকে পড়ে। দলের ম্যানেজার ও বাকিরা তাঁদের সাথে কথা বলে তাঁদের বোঝানোর চেষ্টা করেন। এরপরেই তাঁরা ওই এলাকা ফাঁকা করে দেন।’ এই বিতর্কের পর শুক্রবার প্রথম সাংবাদিক সম্মেলনে সকলের মুখোমুখি হতে চলেছেন সোল্কজায়ের।

বন্ধ করুন