বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও প্যারালিম্পিক্সে ব্যাডমিন্টনের সেমিফাইনালে মনোজ সরকার
মনোজ সরকার (ছবি:টুইটার)
মনোজ সরকার (ছবি:টুইটার)

টোকিও প্যারালিম্পিক্সে ব্যাডমিন্টনের সেমিফাইনালে মনোজ সরকার

  • অলিম্পিক্স বা প্যারালিম্পিক্সের মঞ্চে বাঙালি ক্রীড়াবিদদের দীর্ঘদিনের এই পদক খরা হয়ত কাটতে চলেছে বাঙালি শাটলার মনোজ সরকারের হাত ধরে। টোকিও প্যারিলিম্পিক্সে ব্যাডমিন্টনে তার ব্যক্তিগত বিভাগে মনোজ সরকার পৌঁছে গেলেন সেমিফাইনালে। অর্থাৎ আর একটি ম্যাচ জিততে পারলেই তার পদক জয় নিশ্চিত।

শুভব্রত মুখার্জি: ভারতের হয়ে অলিম্পিক্স হোক বা প্যারালিম্পিক্স বাঙালি ক্রীড়াবিদরা সেভাবে এখনও পর্যন্ত সাফল্য পাননি। সাম্প্রতিক ইতিহাস ঘাটলে দেখা যাবে ভারতীয় শুটার জয়দীপ কর্মকার সবথেকে কাছাকাছি এসেছিলেন দেশের হয়ে পদক জয়ের। ২০১২ সালের লন্ডন অলিম্পিক্সে তিনি মাত্র কয়েক পয়েন্টের ব্যবধানে চতুর্থ স্থানে শেষ করেন। ২০১৬ রিও অলিম্পিক্সে দীপা কর্মকার জিমন্যাস্টিক্সে তার ব্যক্তিগত ইভেন্টে চতুর্থ স্থানে শেষ করেছিলেন। অলিম্পিক্স বা প্যারালিম্পিক্সের মঞ্চে বাঙালি ক্রীড়াবিদদের দীর্ঘদিনের এই পদক খরা হয়তো কাটতে চলেছে শাটলার মনোজ সরকারের হাত ধরে। টোকিও প্যারিলিম্পিক্সে ব্যাডমিন্টনে তার ব্যক্তিগত বিভাগে মনোজ সরকার পৌঁছে গেলেন সেমিফাইনালে। অর্থাৎ আর একটি ম্যাচ জিততে পারলেই তার পদক জয় নিশ্চিত।

পুরুষ ব্যাডমিন্টনের এসএল থ্রি ব্যক্তিগত বিভাগে মনোজ এ দিন সেমিফাইনালে কোয়ালিফাই করলেন। তিনি হারিয়ে দিলেন ইউক্রেনের ওলেকজান্ডার চেরিকভকে। খেলার ফল মনোজের পক্ষে ২১-১৬,২১-৯। প্রথম সেটে একটু লড়াই করলেও দ্বিতীয় সেটে কার্যত খড়কুটোর মতন উড়ে গেলেন চেরিকভ। এ দিন শুরু থেকেই ম্যাচে আধিপত্য বিস্তার করেছিলেন বর্তমানে বিশ্ব ক্রমতালিকায় তিন নম্বরে থাকা মনোজ সরকার।

ফলে মাত্র ২৭ মিনিটের ম্যাচে বিপক্ষকে কার্যত উড়িয়ে দিয়ে সহজ জয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালে প্রবেশ করলেন মনোজ। উল্লেখ্য এই জয়ের ফলে চলতি টোকিও প্যারা গেমসের মঞ্চে পঞ্চম ভারতীয় শাটলার হিসেবে সেমিফাইনালে প্রবেশ করলেন মনোজ সরকার। জাপানের ইয়োইয়োগি ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে শেষ তিনদিনে যে কজন ভারতীয় শাটলার কোয়ার্টার ফাইনালের ম্যাচ খেলেছেন তারা প্রত্যেকেই সেমিফাইনালে প্রবেশ করেছেন। গতকাল প্রমোদ ভগত এবং কৃষ্ণা নাগার সেমিফাইনালে প্রবেশ করেন। আর আজ সেমিফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করলেন মনোজ সরকার সহ তরুণ ধিঁলো এবং সুহাস এহিরাজ।

বন্ধ করুন