জেতার পর মেরি কম (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
জেতার পর মেরি কম (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

রিংয়ের লড়াই শেষেও অব্যাহত মেরি-নিখাত সংঘাত

  • ট্রায়ালে নিখাত জারিনকে হারিয়ে অলিম্পিকের যোগ্যতা অর্জনকারী পর্বের ছাড়পত্র পেলেন মেরি।

লড়াইটা কার্যত আত্মসম্মানের হয়ে দাঁড়িয়েছিল দুজনের কাছেই। সেই লড়াইয়ে প্রাক্তন জুনিয়র বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন নিখাত জারিনকে হারালেন ছ’বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মেরি কম। পেলেন টোকিও অলিম্পিকের ৫১ কেজি বিভাগে যোগ্যতা অর্জন পর্বে খেলার ছাড়পত্র।

অলিম্পিক টিকিটের জন্য আগামী ৩-১৪ ফেব্রুয়ারি চিনের উহানে যোগ্যতা অর্জন পর্বের প্রতিযোগিতা হবে। ‘ধারাবাহিক সাফল্যের কারণে‘ ট্রায়াল ছাড়াই সেখানে সরাসরি মেরিকে পাঠানো হবে বলে জানিয়ে দেন সর্বভারতীয় বক্সিং সংস্থার (বিএফআই) সচিব অজয় সিং। তা নিয়ে শুরু হয় বিতর্ক। সরব হন নিখাত। কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজুকে চিঠি লেখেন তিনি। রিজিজুর অনুরোধে যোগ্যতা অর্জন পর্বের জন্য ট্রায়ালের আয়োজন করে সর্বভারতীয় বক্সিং সংস্থা।

সেইমতো দিল্লিতে শুরু হয় ট্রায়াল। গতকাল মেরি ও নিখাত দু'জনেই জেতেন। তারপর দুজনেই এক অপরকে চ্যালেঞ্জ ছোড়েন। নিখাত বলেন, 'মেরি জিতলেও নিজের সেরা ফর্মে নেই।' অন্যদিকে মেরি বলেন, 'এটা নিয়মরক্ষার লড়াই।'

সেই আবহের মধ্যেই আজ আজ ফাইনালে ৯-১ ব্যবধানে জেতেন ম্যাগনিফিসেন্ট মেরি। ফলে চিনে যাওয়ার ছাড়পত্র পেয়ে যান অলিম্পিকে ব্রোঞ্জ জয়ী বক্সার।

ক্রমশ সংঘাত বাড়ছে দুই বক্সারের (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
ক্রমশ সংঘাত বাড়ছে দুই বক্সারের (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

তারপরও অবশ্য বিতর্কে ইতি পড়েনি। নিখাতের রাজ্য তেলাঙ্গানা বক্সিং সংস্থার কর্তারা অনিয়মের অভিযোগ তোলেন। পরে অবশ্য বিএফআইয়ের সচিবের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

পাশাপাশি, ম্যাচ শেষে নিখাতের সঙ্গে হাতে মেলাননি মেরি। তা নিয়ে রিংয়ের বাইরে এসে মেরি বলেন, 'আমি কেন ওর (নিখাত) সঙ্গে হাত মেলাব ? ও যদি চায় যে ওকে সম্মান দেওয়া হোক, তাহলে আগে অন্যদের সম্মান করা উচিত। আমি এরকম লোকদের পছন্দ করি না। রিংয়ের ভিতর নিজের দাবি প্রমাণ কর, রিংয়ের বাইরে নয়।'

পালটা দিয়েছেন নিখাতও। তিনি বলেন, 'উনি (মেরি কম) যেভাবে ব্যবহার করেছেন, তা আমার পছন্দ হয়নি। কারণ সিদ্ধান্ত ঘোষণার পর আমি তাঁকে জড়িয়ে ধরার চেষ্টা করি। কিন্তু, উনি আমায় জড়িয়ে ধরেননি। জুনিয়র হিসেবে আমি আশা করি, সিনিয়ররাও জুনিয়রদের সম্মান দেখাবেন। তাই আমি আঘাত পেয়েছি।'

বন্ধ করুন