এই ব্যাটেই ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপ মাতিয়েছিলেন যুবরাজ। ছবি- এএফপি।
এই ব্যাটেই ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপ মাতিয়েছিলেন যুবরাজ। ছবি- এএফপি।

৬ ছক্কার পর ম্যাচ রেফারি ব্যাট পরীক্ষা করেছিলেন, নিজেই জানালেন যুবরাজ

  • ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে যে ব্যাটে তিনি ছক্কার ফুলঝুরি ফোটাচ্ছিলেন, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন অ্যাডাম গিলক্রিস্টের মতো অজি তারকাও।

প্রশ্ন উঠেছিল তাঁর ব্যাট নিয়ে। রীতিমতো পরীক্ষা করা হয়েছিল ব্যাটে বাড়তি সুবিধাদায়ক কোনও উপকরণ রয়েছে কিনা। যুবরাজ সিং জানালেন, ২০০৭ টি-২০ বিশ্বকাপে যে ব্যাটে তিনি ছক্কার ফুলঝুরি ফোটাচ্ছিলেন, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন অ্যাডাম গিলক্রিস্টের মতো অজি তারকাও।

টুর্নামেন্টে যুবরাজের দু'টি ইনিংস ক্রিকেটের রূপকথায় জায়গা করে নিয়েছে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১৬ বলে ৫৮ রান করেছিলেন যুবি। যে ইনিংস খেলার পথে তিনি স্টুয়ার্ট ব্রডের এক ওভারে ৬টি ছক্কা মেরেছিলেন। এছাড়া সেমিফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ৩০ বলে ৭০ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন যুবরাজ।

এতদিন পর টিম ইন্ডিয়ার প্রাক্তন অল-রাউন্ডার জানালেন, টুর্নামেন্ট চলাকালীন তাঁর ব্যাট পরীক্ষা করেছিলেন ম্যাচ রেফারি। এমনকি অজি কোচ এসে তাঁকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন ব্যাটে ফাইবার লাগানো আছে কিনা।

যুবি বলেন, 'অস্ট্রেলিয়ার কোচ আমার কাছে এসে জিজ্ঞাসা করে আমার ব্যাটের পিছনে কোনও ফাইবার লাগানো আছে কিনা। এটাও জানতে চায় যে, এটা বৈধ কিনা। ম্যাচ রেফারি ব্যাট পরীক্ষা করেছেন কিনা তাও জিজ্ঞাসা করে অস্ট্রেলিয়ার কোচ। আমি বলি, ম্যাচ রেফারি ব্যাট দেখেছেন। এমনকি গিলক্রিস্ট পর্যন্ত জিজ্ঞাসা করে যে, আমরা কথা থেকে ব্যাট তৈরি করাই।'

যুবরাজ আরও বলেন, 'ম্যাচ রেফারি সত্যিই দেখেছিলেন ব্যাটটা। অস্বীকার করার উপায় নেই, ওটা আমার অত্যন্ত প্রিয় ব্যাট ছিল। এমন ব্যাট দিয়ে আর কখনও খেলিনি আমি। ওটা আর ২০১১ বিশ্বকাপের ব্যাটটা আমার কাছে সবসময় স্পেশাল।'

বন্ধ করুন