বাংলা নিউজ > ময়দান > আজহারের বিরুদ্ধে পুনরায় ম্যাচ গড়াপেটার তদন্তের আর্জি
আজহারউদ্দিন।
আজহারউদ্দিন।

আজহারের বিরুদ্ধে পুনরায় ম্যাচ গড়াপেটার তদন্তের আর্জি

  • ম্য়াচ গড়াপেটা নিয়ে ফের আজহারউদ্দিনের বিরুদ্ধে তদন্তের আর্জি তেলেঙ্গানা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের। এর জন্য তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখাও করবে বলে জানিয়েছে।

ম্যাচ গড়াপেটা কাণ্ডে ফের অস্বস্তিতে প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহম্মদ আজহারউদ্দিন। তাঁর বিরুদ্ধে পুনরায় ম্যাচ গড়াপেটা তদন্তের আর্জি জানিয়েছে তেলেঙ্গানা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন। টিসিএ প্রেসিডেন্ট ওয়াই লক্ষ্মীনারায়ণ এবং সচিব ডি গুরুভা রেড্ডি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, খুব তাড়াতাড়ি এক প্রতিনিধি দল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করবে। এবং মহম্মদ আজহারউদ্দিনের বিরুদ্ধে ম্যাচ গড়াপেটা তদন্ত পুনরায় শুরু করার জন্য সিবিআইয়ের দ্বারস্থ হবে।

শুধু আজহারের জীবনেই নয়, ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসেও এই ম্যাচ গড়াপেটা কাণ্ড এক কলঙ্কিত অধ্যায়। টিসিএ সচিব গুরুভা রেড্ডি বলেছেন, ‘অন্ধ্রপ্রদেশ হাইকোর্ট আজহারকে আজীবন নির্বাসনের শাস্তি থেকে মুক্তি দেয়। ম্যাচ গড়াপেটায় দোষী প্রমাণিত হওয়ার পর বিসিসিআই এই শাস্তি তাঁকে দিয়েছিল। হাইকোর্টের এই রায়কে কেউ চ্যালঞ্জ জানায়নি। তবে আমরা বিসিসিআই-কে অনুরোধ করব, আজহারের বিরুদ্ধে নতুন করে আইনি লড়াই তারা যেন শুরু করে।'

এ ছাড়াও হায়দরাবাদ ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট আজহারউদ্দিনের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ এবং লোধা কমিটির সুপারিশগুলি লঙ্ঘন করার অভিযোগ এনেছে টিসিএ। তেলেঙ্গানা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের আধিকারিকদের অভিযোগ, আজহারের দুর্নীতিযুক্ত শাসনকালে এইচসিএ-র বিভিন্ন স্তরের টুর্নামেন্টের জন্য অ্যাকাউন্ট পরীক্ষানিরীক্ষা এবং ক্রিকেটার ও কোচ নির্বাচন সম্পর্কিত নিয়ম ভঙ্গ করা হয়েছে৷

২০০০ সালে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের ঘটনায় দোষীসাব্যস্ত হন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। তখন তাঁকে আজীবন নির্বাসিত করা হয়। পরে অন্ধ্রপ্রদেশ হাইকোর্ট তাঁকে অভিযোগ থেকে মুক্তি দিলে, ভারতীয় ক্রিকেটের মূলস্রোতে ফেরেন আজহারউদ্দিন।

বন্ধ করুন