বাংলা নিউজ > ময়দান > শামির বলে চোট পেয়েছিলেন স্মৃতি মন্ধনা, তারকা মহিলা ওপেনার জানালেন রোহিতকে
মহম্মদ শামি ও স্মৃতি মন্ধনা।
মহম্মদ শামি ও স্মৃতি মন্ধনা।

শামির বলে চোট পেয়েছিলেন স্মৃতি মন্ধনা, তারকা মহিলা ওপেনার জানালেন রোহিতকে

  • হিটম্যান জানান, শামি তাঁদেরকেও ছেড়ে কথা বলেন না নেটে।

মাঠের লড়াইয়ে বহু তারকা ব্যাটসম্যানকে পরাস্ত করেছেন মহম্মদ শামি। শুধু প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদেরই নয়, নেটে সতীর্থদের আহত করতেও কখনও পিছপা হন না টিম ইন্ডিয়ার তারকা পেসার। তবে শামির বলে চোট পাওয়া ক্রিকেটারদের তালিকায় ভারতের এক মহিলা ক্রিকেটারও রয়েছেন, এটা হয়ত অনেকেরই জানা ছিল না।

ভারতের মহিলা ক্রিকেট দলের তারকা ওপেনার স্মৃতি মন্ধনা নিজেই জানালেন, একদা এনসিএতে শামির বলে নেটে ব্যাট করার সময় চোট পেয়েছিলেন তিনি। চোটের জায়গায় ১০ দিন ব্যথা ছিল তাঁর।

রোহিত শর্মা ও জেমিমা রডরিগেজের সঙ্গে লাইভ চ্যাট শো-এ কথা বলছিলেন মন্ধনা। সেখানেই তিনি জানান এনসিএতে যখন চোট সারিয়ে ওঠার প্রক্রিয়ায় ছিলেন, তখন সেখানে উপস্থিত ছিলেন শামিও। নেটে শামির একটা নিরীহ বলেই আঘাত পেয়েছিলেন তিনি। গত বছর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ঘরোয়া সিরিজের সময় পায়ে চোট পান মন্ধনা। তার পরেই তিনি চোট সারাতে এনসিএতে চলে যান।

মন্ধনা বলেন, ‘আমার মনে আছে এনসিএতে থাকার সময় শামি ভাইয়ার বলে নেটে ব্যাট করছিলাম। আমাকে নিশ্চয়তা দিয়েছিল যে ১২০ কিলোমিটারের বেশি গতিতে বল করবে না এবং শরীরে বলে রাখবে না। প্রথম দুটো বল আমি মিস করি। কারণ আমি ওই গতির বলে ব্যাট করতে অভ্যস্ত নই। তৃতীয় বলটা এসে লাগে আমার উরুতে। সঙ্গে সঙ্গে জায়গাটা ফুলে যায় এবং কালো, নীল ও সবুজ রংয়ের দাগ পড়ে যায়। দশ দিন ফুলে ছিল জায়গাটা।’

রোহিত তখন পালটা জানান যে, নেটে শামিকে সামলাতেই বেশি সমস্যায় পড়তে হয় তাঁকে। হিটম্যান বলেন, ‘নেট আমরা যে পিচে ব্যাট করি, সেটা বেশিরভাগ সময়ই সবুজ হয় এবং পিচ ভিজেও থাকে। পিচে ঘাস দেখলে শামি বাড়তি বিরিয়ানি খেয়ে আসে। এখনতো বুমরাহর সঙ্গে ওর লড়াই চলে, কে বেশিবার ব্যাটসম্যানকে পরাস্ত করতে করতে পারবে আর কত বেশিবার ব্যাটসম্যানের হেলমেটে বল লাগাতে পারবে।’

বন্ধ করুন