আইজলের বিরুদ্ধে জিতলেই লিগ হাতের মুঠোয় চলে আসবে মোহনবাগানের (ফাইল ছবি, সৌজন্য টুইটার @ILeagueOfficial )
আইজলের বিরুদ্ধে জিতলেই লিগ হাতের মুঠোয় চলে আসবে মোহনবাগানের (ফাইল ছবি, সৌজন্য টুইটার @ILeagueOfficial )

কল্যাণীতেই সবুজ-মেরুন আবির ওড়ানোর অপেক্ষায় মোহনবাগান

  • আই লিগের দৌড়ে নিজেদের সামান্যতম আশা বাঁচিয়ে রাখতে এদিন জিততেই হত রিয়েল কাশ্মীরকে। কিন্তু এদিন হেরে গেল তারা। ফলে সুবিধা হল বাগানের।

সবুজ-মেরুন আবির তৈরিই আছে। তবে দোলের দিনের জন্য নয়, বরং দলের লিগ জয়ের দিনই সেই আবির উড়িয়ে উৎসবে মাতোয়ারা হওয়াই লক্ষ্য মোহনবাগান সমর্থকদের। কল্যাণীতে মঙ্গলবারই সেই আবির ওড়ানোর সুযোগ পেয়ে গেলেন তাঁরা। তাও কিনা ইস্টবেঙ্গলের জন্য।

আই লিগের দৌড়ে নিজেদের সামান্যতম আশা বাঁচিয়ে রাখতে এদিন জিততেই হত রিয়েল কাশ্মীরকে। কিন্তু ঘরের মাঠে ৯৬ মিনিটের গোলে ইস্টবেঙ্গলের কাছে হেরে গেল কাশ্মীরের দলটি। ফলে অঙ্কের হিসাবে এখনও আই লিগ জেতার সম্ভাবনা থাকলেও আদতেও তা কোনওভাবেই সম্ভব নয়।

আর ঠিক এখানেই সুবিধা হল মোহনবাগানের। চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ড্র করায় কিছুটা ধাক্কা খেয়েছিল সবুজ-মেরুন শিবির। কারণ আজকের আগে পর্যন্ত ১৪ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট ছিল কাশ্মীরের। এদিন জিতলে তাদের পয়েন্ট হত ২৫। যদি তারা বাকি পাঁচটা ম্যাচই জিতত, সেক্ষেত্রে তাদের পয়েন্ট দাঁড়াত ৪০। অন্যদিকে, আপাতত মোহনবাগানের পয়েন্ট ১৫ ম্যাচে ৩৬। আইজলের বিরুদ্ধে জিতলেও কিবু ভিকুনার দলের পয়েন্ট হবে ৩৯। ফলে লিগ জয় নিশ্চিত করার জন্য ডার্বি পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হত।

তবে এদিন হেরে যাওয়ায় ২০ ম্যাচ শেষে সর্বোচ্চ ৩৭ পয়েন্টে পৌঁছাতে পারে কাশ্মীর। অন্যদিকে, ১৫ ম্যাচে আপাতত মিনার্ভার পয়েন্ট ২৩। বাকি ম্যাচগুলি জিতলেও পঞ্জাবের দলটির সর্বোচ্চ পয়েন্ট দাঁড়াবে ৩৮। ফলে আইজলের বিরুদ্ধে লিগ হাতের মুঠোয় চলে আসবে মোহনবাগানের। অপেক্ষা করতে হবে না ডার্বি পর্যন্ত।

বন্ধ করুন