মোহনবাগান দল। ছবি- টুইটার।
মোহনবাগান দল। ছবি- টুইটার।

বকেয়া মেটায়নি আই লিগ চ্যাম্পিয়ন মোহনবাগানও, ফেডারেশনে যাওয়ার হুমকি ফুটবলারদের

  • বিদেশি ফুটবলাররাও এখনও পাননি চুক্তির পুরো টাকা।

ফুটবলারদের সঙ্গে চুক্তির টাকা নিয়ে টানাপোড়েন চলছে ইস্টবেঙ্গলে। মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই চুক্তি ছিন্ন করায় ও এক মাসের বেতন না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় ইস্টবেঙ্গল ফুটবলাররা ইতিমধ্যেই প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন মারফৎ ফেডারেশনের দ্বারস্থ হয়েছেন। এবার একই সমস্যার মুখে পড়তে চলেছে মোহনবাগানও।

চুক্তি অনুযায়ী ফুটবলারদের পাওনা-গন্ডা মিটিয়ে দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিলেও সমস্যা এড়িয়ে যেতে পারল না আই লিগ জয়ী বাগান শিবির। ফুটবলারদের সঙ্গে বাগানের চুক্তি এপ্রিলের শেষ পর্যন্ত। অর্থাৎ, চুক্তির মেয়াদ ফুরিয়েছে ইতিমধ্যেই। তা সত্ত্বেও ফুটবলাররা তিন মাসের বেতন পায়নি ক্লাব থেকে। 

বকেয়া টাকা মিটিয়া দেওয়া হবে বলে গত মাসেই ফুটবলারদের থেকে ২০ দিনের সময় চেয়ে নিয়েছিলেন বাগান কর্তারা। সেই সময়সীমাও অতিক্রান্ত হয়ে গিয়েছে। প্রতিশ্রুতি পূরণ করেনি ক্লাব। অগত্যা খেলোয়াড়রা ফুটবল প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া (FPAI) মারফৎ সর্বভারতীয় ফুটবল সংস্থায় নালিশ জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ফুটবলারদের তরফে এই মর্মে চিঠিও দেওয়া হয়েছে ক্লাবকে। অন্তত এক মাসের বেতন দাবি করছেন তাঁরা। ক্লাবের তরফে অবশ্য লকডাউনের জন্য স্পনসরদের অর্থিক লেনদেন করতে না পারার অজুহাত দেওয়া হয়েছে। এও শোনা যাচ্ছে যে, দেশে ফিরে যাওয়া বিদেশি ফুটবলারদের আপাতত এক মাসের বেতন দিয়েছেন বাগান কর্তারা। বাকিটা পরে মিটিয়ে দেওয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।

ক্লাবের তরফে এও নিশ্চিত করে দেওয়া হয়েছে যে, ফেডারেশনের কাছ থেকে লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পুরস্কার মূল্য হাতে এলে ফুটবলার ও কোচিং স্টাফদের প্রতিশ্রুতিমতো বেনাসও দেওয়া হবে।

বন্ধ করুন