বাড়ি > ময়দান > '৭.২৯ মিনিট থেকে আমায় অবসরপ্রাপ্ত হিসেবে বিবেচনা করুন', পোস্ট ধোনির
মহেন্দ্র সিং ধোনি (ফাইল ছবি, সৌজন্য টুইটার)
মহেন্দ্র সিং ধোনি (ফাইল ছবি, সৌজন্য টুইটার)

'৭.২৯ মিনিট থেকে আমায় অবসরপ্রাপ্ত হিসেবে বিবেচনা করুন', পোস্ট ধোনির

  • অবসর নিলেন ধোনি, নিজেই জানালেন ইনস্টাগ্রামে।

বরাবরই চমক দিতে ভালোবাসেন তিনি। এবারও তার অন্যথা হল না। আচমকা স্বাধীনতা দিবসের সন্ধ্যায় মহেন্দ্র সিং ধোনি জানালেন, ক্রিকেট থেকে অবসর নিচ্ছেন তিনি।

শনিবার সন্ধ্যায় ৭ টা ৩২ মিনিটে ইনস্টাগ্রামে ধোনি বলেন, ‘ধন্যবাদ। সারা জীবন ভালোবাসা এবং সমর্থনের জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। সন্ধ্যা ৭ টা ২৯ মিনিট থেকে আমায় অবসরপ্রাপ্ত হিসেবে বিবেচনা করতে পারেন।’

কোন ধরনের ক্রিকেটে ‘অবসরপ্রাপ্ত’ তকমা নিয়েছেন, তা নিয়ে কোনও উচ্চবাচ্য করেননি প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। তবে ৪ মিনিট ৭ সেকেন্ডের যে ‘ফেয়ারওয়েল’ ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন, তাতে চেন্নাই সুপার কিংসের কোনও ক্লিপিংস নেই। ভারতীয় টেস্ট, একদিন এবং টি-টোয়েন্টি দলের নানা মুহূর্তের কোলাজ আছে। তা থেকে ক্রিকেট মহলের মত, শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন ধোনি। আইপিএলে খেলবেন তিনি। সূত্র মারফতও সেই খবর মিলেছে।

পাশাপাশি এবারের আইপিএলের প্রস্তুতির জন্য শুক্রবারই চেন্নাইয়ে পৌঁছেছেন ধোনি। সেখানে কয়েকদিন প্রস্তুতি শিবিরের পর আগামী ২১ অগস্ট আরব আমিরশাহিতে উড়ে যাওয়ার কথা চেন্নাই সুপার কিংস ব্রিগেডের। ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর, নিদেনপক্ষে এবারের আইপিএলে খেলবেন বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় ও অধিনায়ক।

আইপিএলের আগে আচমকা অবসরের ঘোষণা করে চমকে দিলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যে তিনি আর খেলবেন না, তা অনেকটাই প্রত্যাশিতই ছিল। ২০১৯ সালের নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে হারের পর থেকে আর ভারতের গায়ে জার্সি চাপাননি। সেই অভিশপ্ত ৯ জুলাইয়ে ৭২ বলে ৫০ রান করেছিলেন। কিন্তু মার্টিন গাপ্টিলের এক অসামান্য থ্রো'তে আউট হয়ে ফিরেছিলেন। প্যাভিলিয়নে ফেরার সময় ক্যামেরায় ধোনির মুখ দেখে মনে হয়েছিল, কাঁদছেন ধোনি। তখনই অনেকে ভেবেছিলেন, এবার বোধহয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন বিশ্বের অন্যতম সাদা বলের ক্রিকেটার। তাঁর ক্রিকেট ভবিষ্যৎ নিয়ে উত্তর দিতে পারছিলেন না কেউই। নিজেও কোনও কথা বলেলনি। কিন্তু স্বাধীনতা দিবসের সন্ধ্যায় যাবতীয় জল্পনার মধ্যেই অপ্রত্যাশিত সময়ে অবসর ঘোষণা করেন ধোনি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের শেষ লগ্নেও বুঝিয়ে দিলেন, তাঁর মাথায় কী চললে তা ঘুণাক্ষরেও টের পাবে না।

বন্ধ করুন