বাংলা নিউজ > ময়দান > Ranji Trophy Final: রঞ্জিতে টানা চতুর্থ শতরানের সুযোগ হাতছাড়া যশস্বীর, লড়াইয়ে ফিরল মধ্যপ্রদেশ
শতরানের সুযোগ হাতছাড়া যশস্বীর। ছবি- বিসিসিআই।

Ranji Trophy Final: রঞ্জিতে টানা চতুর্থ শতরানের সুযোগ হাতছাড়া যশস্বীর, লড়াইয়ে ফিরল মধ্যপ্রদেশ

  • মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে রঞ্জি ট্রফির ফাইনালের প্রথম দিনের দ্বিতীয় সেশনে ৩টি উইকেট তুলে নেয় মধ্যপ্রদেশ।

চলতি রঞ্জি ট্রফিতে টানা চতুর্থ শতরান করার সুযোগ হাতছাড়া করলেন যশস্বী জসওয়াল। কোয়ার্টার ফাইনাল ও সেমিফাইনালে সেঞ্চুরি করে আসার পরে মধ্যপ্রদেশের বিরুদ্ধে রঞ্জি ফাইনালেও নিশ্চিত শতরানের দিকে এগচ্ছিলেন মুম্বইয়ের তারকা ওপেনার। তবে মুহূর্তের ভুলে সেই সম্ভাবনা শেষ হয়ে যায়।

চিন্নাস্বামীতে টস জিতে শুরুতে ব্যাট করতে নামে মুম্বই। পৃথ্বী শ-র সঙ্গে ওপেনিং জুটিতে মুম্বইকে শক্ত ভিতে বসিয়ে দেন যশস্বী। ৮৭ রানের ওপেনিং দুটি ভাঙে পৃথ্বী শ আউট হয়ে বসলে। ৭৯ বলে ৪৭ রান করে অনুভব আগরওয়ালের বলে বোল্ড হন মুম্বই দলনায়ক। মুম্বই প্রথম দিনের লাঞ্চে ১ উইকেটের বিনিময়ে ১০৫ রান তোলে।

আরও পড়ুন:- Ranji Trophy Final: হাফ-সেঞ্চুরির দোরগোড়া থেকে ফিরলেন পৃথ্বী, শক্ত ভিতে মুম্বই

দিনের প্রথম সেশনে যদি মুম্বইয়ের দাপট বজায় থাকে, তবে দ্বিতীয় সেশনে ছড়ি ঘোরায় মধ্যপ্রদেশ। তারা দ্বিতীয় সেশনে ৯৬ রান খরচ করে বটে, তবে আরও ৩টি উইকেট তুলে নেয়। বিশেষ করে ছন্দে থাকা যশস্বীর উইকেটটি ছিল মহা মূল্যবান।

জসওয়াল ৭টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ১৬৩ বলে ৭৮ রান করে মাঠ ছাড়েন। আগরওয়ালের বলে যশ দুবের হাতে ধরা পড়েন তিনি। এছাড়া আরমান জাফর ৩টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৫৬ বলে ২৬ রান করে কুমার কার্তিকেয়ার বলে দুবের হাতেই ধরা দেন। সুবেদ পার্কার ২টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৩০ বলে ১৮ রান করে সরাংশ জৈনকে উইকেট দেন। তাঁর ক্যাচ ধরেন মধ্যপ্রদেশের ক্যাপ্টেন শ্রীবাস্তব।

আরও পড়ুন:- Ranji Trophy Final: রঞ্জি ফাইনালে টস জিতলেন পৃথ্বী, খেতাবি লড়াইয়ে মধ্যপ্রদেশ দলে ফেরাল সাহানিকে

মুম্বই প্রথম দিনের চায়ের বিরতিতে ৪ উইকেটে ২০১ রান তোলে। সরফরাজ খান ১৬ ও হার্দিক তামোরে ১৩ রানে অপরাজিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এবছর উত্তরপ্রদেশের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালের দুই ইনিংসে (১০০ ও ১৮১) শতরান করার আগে উত্তরাখণ্ডের বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় ইনিংসেও সেঞ্চুরি (১০৩) করেন যশস্বী জসওয়াল। সুতরাং ফাইনালের প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করলে টানা চারটি শতরান হয়ে যেত তাঁর।

বন্ধ করুন