বাংলা নিউজ > ময়দান > কয়েক সপ্তাহ আগেই অবসরের ভাবনা ভেবেছিলেন নাদাল! বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি রাফার
বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি রাফার (REUTERS)

কয়েক সপ্তাহ আগেই অবসরের ভাবনা ভেবেছিলেন নাদাল! বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি রাফার

  • সম্পূর্ণ ফিট হলে তবেই নামবেন উইম্বলডনে। ফরাসি ওপেনের পরে নাদাল বার্সেলোনা যান তার চিকিৎসা করাতে। সেই সময় মালোরকাতে থেকে তিনি চিকিৎসা করানোর পাশাপাশি ঘাসের কোর্টে অনুশীলনও করেন তিনি। উইম্বলডনে পরপর রাউন্ডে ফ্রান্সিসকো সেরুনডলু এবং রিচার্ডাস বেরানকিসকে হারান।

শুভব্রত মুখার্জি: দীর্ঘদিন ধরে পায়ের পাতার চোটে ভুগতে হয়েছে রাফায়েল নাদালকে। ডাক্তারি পরিভাষায় যাকে বলে 'মুয়েলার ওয়েস' সিনড্রোম। এতটাই এই চোট তাকে ভুগিয়েছিল যে একটা সময় আদৌ তিনি খেলা চালিয়ে যেতে পারবেন কিনা তা নিয়েই চিন্তাতে ছিলেন তিনি। ২০০৯ সালে অস্ট্রেলিয়াতে প্রথম গ্রান্ড স্ল্যাম জয় থেকে শুরু করে ফরাসি ওপেনে নজির গড়ে ১৪ বার চ্যাম্পিয়ন। ২২ টি গ্রান্ড স্ল্যামের মালিক বর্তমানে ব্যস্ত রয়েছেন উইম্বলডনে খেলতে। দ্বিতীয় রাউন্ডে কঠিন লড়াই জিতে তিনি পৌঁছে গিয়েছেন তৃতীয় রাউন্ডে। সেখানে পৌঁছনোর পরে রাফায়েল নাদালের বিস্ফোরক মন্তব্য মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগেই নাকি অবসরের ভাবনা ভেবেছিলেন তিনি! চলতি উইম্বলডনে খোলসা করলেন বিষয়টি।

সেন্টার কোর্টে ম্যাচ জেতার পরেই কোর্টের পাশে দাঁড়িয়েই এই বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি নাদালের। ফরাসি ওপেন চলাকালীনও এই চোটের কারণে তাকে নিতে হয়েছিল অ্যানাসথেসিয়ার ইনজেকশনও। ফলে নাদাল মনে মনে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিলেন ইনজেকশন আর নেবেন না। সম্পূর্ণ ফিট হলে তবেই নামবেন উইম্বলডনে। ফরাসি ওপেনের পরে নাদাল বার্সেলোনা যান তার চিকিৎসা করাতে। সেই সময় মালোরকাতে থেকে তিনি চিকিৎসা করানোর পাশাপাশি ঘাসের কোর্টে অনুশীলনও করেন তিনি। উইম্বলডনে পরপর রাউন্ডে ফ্রান্সিসকো সেরুনডলু এবং রিচার্ডাস বেরানকিসকে হারান।

নাদাল জানান 'মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগেই আমার ফিলোজফি একেবারে ওর (অবসরের) কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছিল। না আমার ফিলোজফি সেটা নয় (হাসি)। আমি একেবারেই এরকম না। আমার অবসরের ভয় নেই। আমি খুশি যে টেনিসের বাইরেও আমার একটা আনন্দময় জীবন রয়েছে। শেষ ৩০ বছরে টেনিস আমার জীবনের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণভাবে জড়িয়ে রয়েছে। জীবনে পরিবর্তনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে সময় লাগে। আমি সেই চেষ্টাই প্রতিনিয়ত করি।'

বন্ধ করুন