বাংলা নিউজ > ময়দান > প্রাণে বাঁচতে আফগানিস্তান ছেড়ে পালিয়েছিলেন, PSG-র তারকা ফুটবলার এবার ডাক্তার হয়ে দায়িত্ব নিলেন প্রাণ বাঁচানোর
নাদিয়া নাদিম। ছবি- টুইটার।
নাদিয়া নাদিম। ছবি- টুইটার।

প্রাণে বাঁচতে আফগানিস্তান ছেড়ে পালিয়েছিলেন, PSG-র তারকা ফুটবলার এবার ডাক্তার হয়ে দায়িত্ব নিলেন প্রাণ বাঁচানোর

  • তালিবান জঙ্গিরা বাবাকে হত্যা করার পর ১১ বছর বয়সে আফগানিস্তান ছেড়ে ডেনমার্কে পালিয়েছিলেন নাদিম।

ঠিক যেন সিনেমার গল্প। বাস্তবের চরিত্রকে পর্দায় ফুটিয়ে তোলার যে প্রবণতা দেখা যায় সাম্প্রতিক সময়ে, তাতে ইন্ধন জোগাতে পারে নাদিয়া নাদিমের জীবনী। এমন চরিত্রের বায়োপাকি সুপারহিট হবে নিশ্চিত।

তালিবান জঙ্গিরা বাবাকে হত্যা করার পর মায়ের সঙ্গে আফগানিস্তান ছেড়ে পালিয়ে গিয়েছিলেন ১১ বছরের নাদিয়া। শরণার্থী থেকে শেষমেশ ডেনমার্কের নাগরিকত্ব পান তিনি। ফুটবলকে আঁকড়ে শুধু প্রতিষ্ঠা পান এমন নয়, বরং আন্তর্জাতিক ফুটবলের মহাতারকা হয়ে ওঠেন ক্রমশ। একদা প্রাণে বাঁচতে দেশ ছেড়ে পালানো সেই নাদিয়াই এবার প্রাণ বাঁচানোর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিলেন। ফুটবল খেলার পাশাপাশি ৫ বছরের পড়শোনা শেষে ডাক্তারে পরিণত হলেন ড্যানিশ তারকা।

ডেনমার্কের জাতীয় দলের হয়ে ইতিমধ্যেই ৯৯টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা হয়ে গিয়েছে নাদিয়ার। ৩৮টি গোল করেছেন দেশের হয়ে। ম্যাঞ্চেস্টার সিটি, প্যারিস সাঁ-জা'র মতো প্রথমসারির ক্লাবে চুটিয়ে ফুটবল খেলেছেন। সব মিলিয়ে ২০০-র বেশি গোল রয়েছে খাতায়। এহেন তারকা ফুটবলার সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই জানান ডাক্তারি পাশ করার কথা। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, নাদিয়া ১১টি ভাষায় সাবলীলভাবে কথা বলতে পারেন।

নিজের ডাক্তারি ডিগ্রি পাওয়ার কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘোষণা করে নাদিয়া লেখেন, ‘যাঁরা প্রথম দিন থেকে আমাকে সমর্থন করেছেন এবং যাঁদের যাত্রাপথে নতুন বন্ধু হিসেবে পেয়েছি, সবাইকে ধন্যবাদ। আপনাদের সমর্থন ছাড়া আমার পক্ষে এটা কখনই সম্ভব হতো না। পাশে থাকার জন্য চিরকাল কৃতজ্ঞ থাকব আপনাদের কাছে।’

বন্ধ করুন