বাড়ি > ময়দান > টানা তৃতীয় বছর খেলরত্নের জন্য নাম প্রস্তাব নীরজের
নীরজ চোপড়া। ছবি- টুইটার।
নীরজ চোপড়া। ছবি- টুইটার।

টানা তৃতীয় বছর খেলরত্নের জন্য নাম প্রস্তাব নীরজের

  • টোকিও অলিম্পিকে ভারতের অন্যতম পদক সম্ভাবনা হিসেবে বিবেচিত হচ্ছেন তারকা জ্যাভেলিন থ্রোয়ার।

টানা তৃতীয়বার নীরজ চোপড়ার নাম রাজীব গান্ধী খেলরত্নের জন্য প্রস্তাব করল অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়া (AFI)। ট্র্যাক এন্ড ফিল্ড থেকে এবছর একমাত্র তারকা জ্যাভেলিন থ্রোয়ারের নামই দেশের সর্বোচ্চ ক্রীড়া সম্মানের জন্য পাঠানো হল কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রকে।

২০১৮ সালে গোল্ড কোস্ট কমনওয়েলথ গেমসে সোনা জয়ের সুবাদে ইতিমধ্যেই অর্জুন হয়েছেন নীরজ। সেবছরই তাঁর নাম খেলরত্নের জন্য পাঠিয়েছিল অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন। পরে জাকার্তা এশিয়ান গেমসে সোনা জয়ের পর গতবছরও নীরজকে খেলরত্নের জন্য মনোনীত করেছিল সর্বভারতীয় অ্যাথলেটিক্স সংস্থা। যদিও দু'বারই জুরি প্যানেল নীরজকে খেলরত্নের জন্য যোগ্য মনে করেনি। এই নিয়ে তৃতীয়বার এএফআই নীরজের হাতে খেলরত্ন তুলে দেওয়ার চেষ্টায় আসরে নামল।

উল্লেখ্য, খেলরত্নের জন্য পদক ও সার্টিফিকেট ছাড়াও সাড়ে সাত লক্ষ টাকা আর্থিক পুরস্কার দেওয়া হয় প্রাপককে। গতবছর ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি গেমসে সোনা জেতা এবং এশিয়ান গেমসে জোড়া রুপো জেতা স্প্রিন্টার দ্যুতি চাঁদের নাম ওড়িশা সরকার ইতিমধ্যেই অর্জুন পুরস্কারের জন্য প্রস্তাব করেছে।

নীরজ ইতিমধ্যেই টোকিও অলিম্পিকের যোগ্যতা অর্জন করেছেন। ২০১৯-এর গোটা মরশুম কনুইয়ের চোটের জন্য ট্র্যাকের বাইরে ছিলেন চোপড়া। সেই সময় চোট সারাতে অস্ত্রোপচারও করাতে হয় তাঁকে। চোট থেকে ফিরে এসেই অলিম্পিকের যোগ্যতামান পেরিয়ে যান তিনি। টোকিও অলিম্পিকে ভারতের অন্যতম পদক সম্ভাবনা হিসেবে বিবেচিত হচ্ছেন নীরজ।

গত জানুয়ারিতে দক্ষিণ আফ্রিকায় চোট থেকে ফেরার পর প্রথম টুর্নামেন্টেই ৮৭.৮৬ মিটার জ্যাভেলিন ছোঁড়েন নীরজ। অলিম্পিকের যোগ্যতা অর্জন করতে হলে ৮৫ মিটার দূরে জ্যাভেলিন নিক্ষেপ করতে হয়। শেষবার কোনও বড় আন্তর্জাতিক ইভেন্ট হিসেবে জাকার্তা এশিয়ান গেমসে মাঠে নেমেছিলেন চোপড়া। সেখানে ৮৮.০৬ মিটার জাভেলিন ছুঁড়ে জাতীয় রেকর্ড গড়েন এবং সোনার পদক গলায় ঝোলান তিনি।

এবছর খেলরত্নের জন্য নীরজকে লড়াই চালাতে হবে তারকা ক্রিকেটার রোহিত শর্মার সঙ্গে। রোহিতের নাম ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফে খেলরত্নের জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রকে। যদিও একাধিক অ্যাথলিটকে একসঙ্গে খেলরত্নে ভূষিত করার নজিরও রয়েছে সাম্প্রতিক অতীতে।

বন্ধ করুন