বাংলা নিউজ > ময়দান > ইংল্যান্ডের হাতে 'লাঞ্ছিত' হওয়ার পরেই দেশের হয়ে আর খেলবেন না বলে জানিয়ে দিলেন ডাচ দলনায়ক
পিটার সিলার। ছবি- আইসিসি।

ইংল্যান্ডের হাতে 'লাঞ্ছিত' হওয়ার পরেই দেশের হয়ে আর খেলবেন না বলে জানিয়ে দিলেন ডাচ দলনায়ক

  • মর্গ্যানদের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজের মাঝেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন পিটার সিলার।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজের মাঝপথেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন পিটার সিলার। বরং বলা ভালো যে, চোটের জন্য খেলা ছাড়তে বাধ্য হলেন নেদারল্যান্ডসের ক্যাপ্টেন।

নেদারল্যান্ডসের জাতীয় দলে সিলারের আবির্ভাব ২০০৫ সালে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁর অভিষেক হয় পরের বছর। আমস্টেলভিনে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে কেরিয়ারের প্রথম ওয়ান ডে খেলেন তিনি। ২০০৮ সালে বেলফাস্টে কেনিয়ার বিরুদ্ধে কেরিয়ারের প্রথম আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ খেলান সিলার।

আরও পড়ুন:- প্রায় ৫০০ রান তাড়া করতে নেমে অস্ট্রেলিয়ার থেকে ভালো লড়াই চালায় নেদারল্যান্ডস, দেখুন পরিসংখ্যান

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে চলতি সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামেন তিনি। সেই ম্যাচে ২টি উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ২৫ রানও করেন তিনি। যদিও ম্যাচে ব্রিটিশদের হাতে যারপরনাই লাঞ্ছিত হতে হয় নেদারল্যান্ডসকে। ইংল্যান্ড ৪৯৮ রান সংগ্রহ করে বিশ্বরেকর্ড গড়ে।

পিঠের চোটে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে মাঠে নামতে পারেননি পিটার। তাঁর পরিবর্তে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ান ডে ম্যাচে ডাচ দলকে নেতৃত্ব দেন উইকেটকিপার স্কট এডওয়ার্ডস। চোটের জন্য নিজের সেরাটা দিতে পারছেন না বলেই খেলা ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন সিলার। যবনিকা পড়ে তাঁর ১৭ বছরের কেরিয়ারে।

আরও পড়ুন:- NED vs ENG: গলি ক্রিকেট নয়, আন্তর্জাতিক ম্যাচে গাছপালার ঝোপ থেকে বল খুঁজে আনলেন ক্রিকেটাররা, ভিডিয়ো

নেদারল্যান্ডসের হয়ে ৫৭টি ওয়ান ডে ও ৭৭টি আন্তর্জাতিক টি-২০ ম্যাচ খেলেন পিটার। সাকুল্যে ৯৩৮ রান সংগ্রহ করেন তিনি। বল হাতে তুলে নেন ১১৫টি আন্তর্জাতিক উইকেট।

বন্ধ করুন