বাংলা নিউজ > ময়দান > ধোনির পর ভারতের সেরা ফিনিশার কে জানেন? পরিসংখ্যান দেখলে চমকে যাবেন
মহেন্দ্র সিং ধোনি।

ধোনির পর ভারতের সেরা ফিনিশার কে জানেন? পরিসংখ্যান দেখলে চমকে যাবেন

  • একজন ফিনিশারের ভূমিকা হল ডেথ ওভারে যতটা সম্ভব রান সংগ্রহ করে দলকে ম্যাচ জিততে সাহায্য করা। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ডেথ ওভারে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বাধিক রান করার রেকর্ড রয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির। ধোনি শেষ ওভারে মোট ৮৫৬ রান করেছেন।

যখনই টিম ইন্ডিয়ার সেরা ফিনিশারের কথা আসে, তখন মহেন্দ্র সিং ধোনির নাম সকলের আগে আসে। শেষ ওভারে ভারতের হয়ে অনেক ম্যাচ জিতিয়েছেন ধোনি। ফিনিশার হিসেবে প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়কের পরিসংখ্যান চমৎকার। বর্তমানে ধোনির অভাব পূরণের চেষ্টা করছেন হার্দিক পান্ডিয়া। হার্দিক দলে অলরাউন্ডার হিসেবে খেলেন এবং ফিনিশারের ভূমিকাও পালন করেন। কিন্তু জানেন কি ভারতের সেরা ফিনিশারদের তালিকায় ধোনির পরেই আসে কার নাম?

আরও পড়ুন: T20-তে আর ৯৮ করলে প্রথম ভারতীয় হিসেবে কোহলি গড়বেন বড় নজির,ভাঙবেন কোচের রেকর্ডও

তিনি আর কেউ নন। ভারতের সেরা ফিনিশারদের তালিকায় ধোনির পরেই রয়েছেন বিরাট কোহলি। এই তথ্য অবাক হওয়ার মতোই। তবে এটাই বাস্তব। একজন ফিনিশারের ভূমিকা হল ডেথ ওভারে যতটা সম্ভব রান সংগ্রহ করে দলকে ম্যাচ জিততে সাহায্য করা। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ডেথ ওভারে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সর্বাধিক রান করার রেকর্ড রয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির। ধোনি শেষ ওভারে মোট ৮৫৬ রান করেছেন, যেখানে বিরাট কোহলি করেছেন ৬২১ রান। এই তালিকায় কোহলি রয়েছেন দ্বিতীয় স্থানে। আর তৃতীয় স্থানে রয়েছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া। হার্দির আবার ডেথ ওভারে করেছেন ৫০৮ রান।

আরও পড়ুন: কোহলি না রোহিত, টি২০-তে অজিদের রাতের ঘুম কেড়েছেন কে?

২০২২ সালের এশিয়া কাপে ফের নিজের পুরনো ছন্দে ফিরেছেন বিরাট কোহলি। তিনি এই এই টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় ২৭৬ রান করে দ্বিতীয় স্থানে জায়গা পেয়েছেন। এই টুর্নামেন্টের তিনি আবার সেঞ্চুরির খরা কাটিয়ে উঠেছেন। আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচে অপরাজিত ১২২ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেছেন।

এশিয়া কাপের আগে দীর্ঘদিন ধরেই অফ ফর্মে ছিলেন কোহলি। বলা হচ্ছিল যে, কোহলি তাঁর ক্যারিয়ারের সবচেয়ে খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন। সেঞ্চুরি করা তো দূরের কথা, কোহলিও ৫০ পেরোতেই হিমশিম খাচ্ছিলেন। তবে এশিয়া কাপের আগে কিং কোহলি এক মাসের বিরতি নিয়েছিলেন, যা তার জন্য খুব দরকারী ছিল।

ভারতকে এখন ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৩টি করে ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে হবে। আশা কর হচ্ছে, এই সিরিজেও দুর্দান্ত পারফর্ম করে কোহলি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে উড়ে যাবেন।

বন্ধ করুন