বাড়ি > ময়দান > ধোনি-যুবরাজের বিকল্প পাওয়া যায় নি, স্বীকারোক্তি প্রাক্তন মুখ্য নির্বাচকের
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

ধোনি-যুবরাজের বিকল্প পাওয়া যায় নি, স্বীকারোক্তি প্রাক্তন মুখ্য নির্বাচকের

কেএল রাহুলকে এত সুযোগ কেন দেওয়া হয়েছে, সেই কথাও বলেন তিনি।

সবে শেষ করেছেন মুখ্য নির্বাচক হিসাবে মেয়াদ। চারবছর নির্বাচক হিসাবে দায়িত্ব পালন করার পর তৃপ্ত এমএসকে প্রসাদ। তাঁর কথায়, ভালো ব্যাকআপ তৈরী আছে সব ফর্ম্যাটেই। ফলে ভারতীয় ক্রিকেট ভবিষ্যতেও ভালো ফলাফল করবে, বলে তিনি আশাবাদী। এক সর্বভারতীয় দৈনিককে দেওয়া সাক্ষাত্কারে নিজের মেয়াদকালের নানান মাইলফলকের কথা তুলে ধরেন তিনি।

কিন্তু যারা উঠে আসছে তারা ভালো হলেও যুবরাজ সিং ও মহেন্দ্র সিং ধোনির কোনও বিকল্প ভারতীয় ক্রিকেটে এখনও আসেনি, অকপটে জানান প্রাক্তন মুখ্য নির্বাচক। প্রসাদের মতে তাঁরা সব ফর্ম্যাটের জন্য স্পেশালিস্ট খুঁজে বার করতে পেরেছেন, এটা তাদের অন্যতম বড় সাফল্য। রাহুল দ্রাবিড়, রবি শাস্ত্রী ও কোহলির সঙ্গে পরামর্শ নিয়ে তারা যেভাবে প্রান্তিক খেলোয়াড়দের জাতীয় দলের জন্য তৈরী করতে পেরেছেন, তাতেও তৃপ্ত প্রসাদ। তবে অনেক সময় দেখা গিয়েছে কোনও ক্রিকেটারকে দলে নির্বাচন করলেও তাঁকে খেলান না অধিনায়ক। সেই প্রসঙ্গে প্রসাদ বলেন যে সহমতি হওয়া প্রয়োজন নির্বাচক ও টিম ম্যানেজমেন্টের মধ্যে।

রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও রবীন্দ্র জাডেজাকে ওডিআই দল থেকে তাদের নেওয়া সবচেয়ে শক্ত সিদ্ধান্ত বলেও জানান প্রসাদ। কেএল রাহুলকে ধারাবাহিক ভাবে সুযোগ দেওয়া নিয়ে অনেক প্রশ্ন উঠেছে। কিন্তু প্রসাদের কথায়, রাহুলের মধ্যে প্রতিভাকে তারা চিহ্নিত করেছিলেন। তাই কিছু ম্যাচে রান না পেলেও তাঁকে দলে রাখা হয়েছিল। ২০১৯ বিশ্বকাপে চার নম্বর পজিসনে কাউকে স্থায়ী ভাবে খেলাতে পারেননি কোহলি। এই নিয়ে অনেক সমালোচনাও হয়েছে। প্রসাদের অবশ্য বক্তব্য, সেই জন্য নয়, সেমিফাইনালে ভালো খেলতে না পেরে হারে ভারত।


বন্ধ করুন