বাংলা নিউজ > ময়দান > বাবর আজম নন, কোহলিই এক নম্বর ব্যাটসম্যান, দাবি প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের
বাবর আজমের চেয়ে বিরাট কোহলিকেই এগিয়ে রাখছেন মহম্মদ ইউসুফ।
বাবর আজমের চেয়ে বিরাট কোহলিকেই এগিয়ে রাখছেন মহম্মদ ইউসুফ।

বাবর আজম নন, কোহলিই এক নম্বর ব্যাটসম্যান, দাবি প্রাক্তন পাক ক্রিকেটারের

  • পাক অধিনায়কের তুলনায় সব দিক থেকে ভারত অধিনায়ককে অনেকটাই এগিয়ে রাখছেন মহম্মদ ইউসুফ। বর্তমান সময়ে বিরাটই যে এক নম্বর ক্রিকেটার, সেটা পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার।

পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটাররা বিরাট কোহলির সঙ্গে বাবর আজমের যতই তুলনা টানুন না কেন, মহম্মদ ইউসুফ কিন্তু একেবারে অন্য কথা বলছেন। তিনি বরং পাক অধিনায়কের তুলনায় সব দিক থেকে ভারত অধিনায়ককে অনেকটাই এগিয়ে রাখছেন। বর্তমান সময়ে বিরাটই যে এক নম্বর ক্রিকেটার, সেটা পরিষ্কার ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন মহম্মদ ইউসুফ।

পাকিস্তানের এই প্রাক্তন ক্রিকেটার বরাবরই বিরাটের খেলার ভক্ত। একটি ইউটিউব অনুষ্ঠানে ইউসুফ বলেন, ‘আমি ওকে (বিরাটকে) কখনও প্র্যাক্টিস করার সময়ে দেখিনি। কিন্তু ওর কিছু অনুশীলেন ভিডিয়ো আমি টুইটারে দেখেছি। বা অন্য জায়গাতেও দেখেছি। কেউ যদি আমাকে জিজ্ঞেস করে, বর্তমান যুগে মর্ডান ক্রিকেটটা কী, আমি তাহলে বলবে, এটা সম্পূর্ণ ভাবে ট্রেনিংয়ের উপর নির্ভরশীল। এই সময়ের যে সব প্লেয়াররা ফিট এবং ফাস্ট, তার মধ্যে বিরাট কোহলি এগিয়ে। ওর অসাধারণ পারফরম্যান্সের পিছনে এটাই কারণ।’

এর সঙ্গেই তিনি যোগ করেছেন, ‘একদিনের ক্রিকেট এবং টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে ওর ৭০টি শতরান রয়েছে। একদিনের ক্রিকেটে ১২০০০ রান রয়েছে। টেস্ট ক্রিকেটে হয়তো ১০ হাজার রান করে ফেলবেন। টি-টোয়েন্টিতেও তাঁর রানের পরিসংখ্যান বেশ ভাল। তিন ফর্ম্যাটের ক্রিকেটেই ওর পারফরম্যান্স উচ্চ-স্তরের। বর্তমান যুগে বিরাটই এক নম্বর ব্যাটসম্যান। আমি আগেও বলেছি, আগের সময়কার ক্রিকেটারদের সঙ্গে তুলনা টানা ঠিক হবে না। তবে ওর পারফরম্যান্স এক কথায় অসাধারণ।’ বিরাটের সঙ্গে অনেক সময়ে সচিন তেন্ডুলকরেরও তুলনা টানা হয়। সে কারণেই ইউসুফ বলেছেন, আগের সময়কার কোনও ক্রিকেটারের সঙ্গে তিনি তুলনা টানতে রাজি নন।

বাবর আজম সম্পর্কেও তিনি বলেছেন, পাক অধিনায়ক কঠোর অনুশীলন করেন, তাই সাফল্য পাচ্ছেন। তবে এক নম্বর প্লেয়ার বিরাটই। ইউসুফ বলেছেন, ‘বাবর নিজের প্রতিভাকে কাজে লাগায়। ও কঠোর অনুশীলন করে। আমি সব সময় তরুণদের বলে থাকি, তারা যত বেশি কঠোর অনুশীলন করবে, ততই ম্যাচ খেলাটা সহজ হবে। বাবর নিয়মিত তা করে চলেছে, আর তাই আজ একদিনের ক্রিকেটে ও এক নম্বরে রয়েছে, টি-টোয়েন্টিতে তিন নম্বরে রয়েছে। একজন প্লেয়ার ক্রিকেটের তিন ফর্ম্যাটেই দশের মধ্যে রয়েছে, এটাই তো বড় প্রাপ্তি।’

বন্ধ করুন