বাংলা নিউজ > ময়দান > কোহলি ‘নট আউট', টুইট করে সরব হলেন ভারত অধিনায়কের সবচেয়ে বড় সমালোচক মাইকেল ভনও
বিরাট কোহলি।

কোহলি ‘নট আউট', টুইট করে সরব হলেন ভারত অধিনায়কের সবচেয়ে বড় সমালোচক মাইকেল ভনও

  • শুক্রবার মুম্বইয়ে ৩০তম ওভারের শেষ বলে বিরাটের এলবিডব্লিউ-এর জন্য জোরালো আবেদন করেন আজাজ প্যাটেল। আউট দেন অনফিল্ড আম্পায়ার। সঙ্গে সঙ্গে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস) নেন বিরাট। রিভিউয়ে দেখা যায়, ব্যাটে বল লেগেছে কিনা, তা খালি চোখে বোঝা যায়নি। তাই অনফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই বহাল রাখা হয়।

বিরাট কোহলি আউট ছিলেন, নাকি আউট ছিলেন না। এই নিয়ে বিতর্কের ঝড় বয়ে চলেছে। কোহলির আউট নিয়ে নেটপাড়া একেবারে উত্তাল। এই পরিস্থিতিতে কোহলির সবচেয়ে বড় সমালোচক মাইকেল ভনও পাশে দাঁড়িয়েছেন ভারত অধিনায়কের। তিনিও দাবি করেছেন, নট আউট ছিলেন কোহলি।

শুক্রবার মুম্বইয়ে ৩০তম ওভারের শেষ বলে বিরাটের এলবিডব্লিউ-এর জন্য জোরালো আবেদন করেন আজাজ প্যাটেল। আউট দেন অনফিল্ড আম্পায়ার অনিল চৌধুরী। সঙ্গে সঙ্গে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস) নেন বিরাট। রিভিউয়ে দেখা যায়, ব্যাটে বল লেগেছে কিনা, তা খালি চোখে বোঝা যায়নি। ফ্রন্টফুটে বিরাট রক্ষণাত্মক খেলার সময় ব্যাট এবং প্যাডের প্রায় মাঝখানে ছিল বল। আন্ট্রাএজে গ্রাফের নড়াচড়া ধরা পড়ে। তবে বল প্রথম ব্যাটে লেগেছে নাকি বল প্যাডে লেগেছে, তা বুঝতে পারেননি বলে দাবি করেন তৃতীয় আম্পায়ার বীরেন্দর শর্মা। যদিও ব্যাটের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় বলের সিম কিছুটা ঘুরতে দেখা যায়। তা থেকে মনে হচ্ছিল যে ব্যাটে লেগেছে বল। যদিও তৃতীয় আম্পায়ার দাবি করেন, কোনও ‘অকাট্য’ প্রমাণ নেই। তাই অনফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই বহাল রাখেন।

এই নিয়ে তীব্র বিতর্ক চলছে। মাইকেল ভন টুইটারে পরিষ্কার ভাবে লিখে দিয়েছেন, ‘নট আউট’।

 ৪ বল খেলে রানের খাতা না খুলেই কোহলি প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। কোহলির আগে সুভমন গিল ৪২ রান করে এবং চেতেশ্বর পূজারাও শূন্য হাতে সাজঘরে আউট হয়ে গিয়েছিলেন। যার ফলে মাত্র ৮০ রানের মাথায় ভারত ৩ উইকেট হারিয়ে বসে থাকে। প্রথম টেস্ট দুরন্ত ছন্দে থাকা শ্রেয়স আইয়ারও ব্যর্থ হয়েছেন এ দিন। তিনি মাত্র ১৮ করে আউট হন। ১৬০ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে বসে ভারত। তবে ময়াঙ্ক আগরওয়াল শুরু থেকে দলের হাল ধরেছেন। ওপেন করতে নেমে অপরাজিত ১২০ রান করে ফেলেছেন তিনি। ঋদ্ধিমান সাহা ২৫ করে অপরাজিত রয়েছেন। প্রথম দিনের শেষে ভারতের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২২১ রান।

বন্ধ করুন