বাংলা নিউজ > ময়দান > রোলাঁ গারোর শেষ চারের লড়াইয়ে এ বার ফাইনালের উষ্ণতা, মুখোমুখি রাফা-জোকার
নোভক জোকোভিচ। ছবি: রয়টার্স
নোভক জোকোভিচ। ছবি: রয়টার্স

রোলাঁ গারোর শেষ চারের লড়াইয়ে এ বার ফাইনালের উষ্ণতা, মুখোমুখি রাফা-জোকার

  • বুধবার আগেই সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছিলেন রাফা। বেশি রাতের ম্যাচে ইতালির মাতেয়ো বেরেত্তিনিকে ৬-৩, ৬-২, ৬-৭ (৫-৭), ৭-৫ হারিয়ে শেষ চারে পৌঁছান জোকার।

যে উন্মাদনাটা সাধারণত ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে হয়ে থাকে, সেই আঁচটা এ বার সেমিফাইনালেই টের পাবেন টেনিসপ্রেমীরা। এই কারণে অবশ্য অনেকেরই মন খারাপ। কারণ এ বার শেষ চারের লড়াইয়ে মুখোমুখি হতে চলেছেন রাফায়েল নাদাল এবং নোভক জোকোভিচ। সেমিফাইনালেই এক তারকাকে বিদায় জানাতে হবে। আর এর জন্যই টেনিসভক্তদের মন আগে থেকেই খারাপ। তবে শুক্রবার নিঃসন্দেহে জমজমাট একটা লড়াই দেখতে পাবেন টেনিসপ্রেমীরা।

বুধবার আগেই সেমিফাইনালে পৌঁছে গিয়েছিলেন রাফা। বেশি রাতের ম্যাচে ইতালির মাতেয়ো বেরেত্তিনিকে হারিয়ে শেষ চারে পৌঁছান জোকার। শেষ চারে ওঠার লড়াইটা খুব সহজ ছিল না। চার সেটের লড়াইয়ে শেষ হাসি অবশ্য হাসেন জোকোভিচই। খেলার ফল ৬-৩, ৬-২, ৬-৭ (৫-৭), ৭-৫। খেলার ফল দেখেই বোঝা যাচ্ছে প্রথম দু'টি সেটে জোকোভিচ সহজ জয় পেলেও, তৃতীয় এবং চতুর্থ সেটে মাতেয়ো বেরেত্তিনি কিন্তু ঘুরে দাঁড়ান। সমানে সমানে টক্কর দেন তিনি। তবে শেষ রক্ষা আর হয়নি।

তৃতীয় সেটে ম্যাচ পয়েন্ট পাওয়ার পর জোকোভিচের সেলিব্রেশনটা দেখার মতোই ছিল। বিস্ফারিত নয়নে, বুকে চাপড় মেরে, চিল্লিয়ে নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন জোকার। আর সেই ভিডিয়োটি রোলাঁ গারোর তরফে টুইটারে পোস্ট করা হয়েছে।

সেমিফাইনালে আবার নাদালের অন্য লক্ষ্য রয়েছে। যেনতেন প্রকারেণ তিনি ফাইনালে উঠতে চাইবেন। কারণ তাঁর সামনে রজার ফেডেরারকে ছাপিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। রোলাঁ গারো জিতলে ২১টি গ্র্যান্ডস্লাম জিতে নতুন রেকর্ড করবেন রাফা। এখন ফেডেরার এবং নাদালের দখলে ২০টি করে গ্র্য়ান্ডস্লাম রয়েছে। জোকোভিচ আবার ১৮টি গ্র্যান্ডস্লাম জিতেছেন। তিনিও চাইবেন ফেডেরার আর নাদালকে স্পর্শ করতে। তাই সহজে হাল ছাড়বেন না জোকোভিচও।

বন্ধ করুন