বাংলা নিউজ > ময়দান > মাদ্রিদ ওপেন থেকে নাম তুলে নিলেন জোকোভিচ
নোভাক জোকোভিচের ফাইল ছবি (ছবি;গুগল)
নোভাক জোকোভিচের ফাইল ছবি (ছবি;গুগল)

মাদ্রিদ ওপেন থেকে নাম তুলে নিলেন জোকোভিচ

আর কয়েকদিন পরেই মাদ্রিদে বসতে চলেছে বিশ্বের অন্যতম সেরা টেনিস প্রতিযোগিতার আসর। এই প্রতিযোগিতা ২০১৯ সালে জিতেছিল জোকোভিচ। করোনা পরিস্থিতির জন্য ২০২০ সালে এই টুর্নামেন্টে খেলা হয়নি। ফলে ২০১৯এর নিরিখে এখনও ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নের তকমা রয়েছে নোভাকের মাথায়। 

আসন্ন ২০২১ মাদ্রিদ ওপেন থেকে নিজের নাম তুলে নিলেন নোভাক জোকোভিচ। কারণ হিসাবে তিনি কিছু না বললেও অনেকেই ভাবছেন, পরের গুরত্বপূর্ণ টুর্নামেন্ট গুলোর জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা। 

তবে কোভিডের পরিস্থিতিকেও দায়ি করতে পারেন অনেকে। কিন্তু টুর্নামেন্টের উদ্যোগক্তাদের তরফ থেকে করোনার কথা বলা হয়নি। প্রতিযোগিতার ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন যদি না খেলে সেক্ষেত্রে টুর্নামেন্টের জৌলুস অনেকটাই কমে যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আর কয়েকদিন পরেই মাদ্রিদে বসতে চলেছে বিশ্বের অন্যতম সেরা টেনিস প্রতিযোগিতার আসর। এই প্রতিযোগিতা ২০১৯ সালে জিতেছিল জোকোভিচ। করোনা পরিস্থিতির জন্য ২০২০ সালে এই টুর্নামেন্টে খেলা হয়নি। ফলে ২০১৯এর নিরিখে এখনও ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নের তকমা রয়েছে নোভাকের মাথায়। 

এমন অবস্থায় মাদ্রিদ ওপেন থেকে নিজের নাম তুলে নিলেন বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকা নোভাক জোকোভিচ। যা অনেককেই ভাবাচ্ছে। তিনি তাঁর ভক্তদের জানিয়েছেন, তিনি এবারে মাদ্রিদ ওপেন ডিফেন্ড করবেননা। তিনি এবারে মাদ্রিদের কোর্টে নামবেন না। জোকোভিচ দর্শকদের উদ্দেশ্যে একটি বার্তা দিয়েছেন, যেখানে তিনি লিখেছেন, ‘আমি ক্ষমা চাইছি, এবারে মাদ্রিদ ওপেন খেলার জন্য আমি আসতে পারছিনা।’ জোকোভিচ নিজের ভক্তদের উদ্দেশ্যে দেওয়া এই বার্তায় মাদ্রিদের সকল ভক্তদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। তবে তিনি নিজের বার্তার শেষ অংশে জানিয়েছেন, ‘আশা করছি গত বছর আমাদের আবার দেখা হবে।’ 

৩৩ বছরের এই টেনিস তারকাকে শেষ দেখা গিয়েছিল গত সপ্তাহের সার্ভিয়া ওপেনে। সেখানে তিনি সেমিফাইনালে হেরে যান। ফলে সময় নিয়ে নিজেকে তৈরি করেই কোর্টে ফিরতে চান জোকোভিচ। অন্যদিকে এই প্রথমবার নয় যে জোকোভিচ নিজের নাম তুলে নিয়েছেন, এর আগেও তিনবার মাদ্রিদ ওপেন থেকে নিজের নাম তুলে নিয়েছিলেন জোকোভিচ।

বন্ধ করুন