বাংলা নিউজ > ময়দান > একজনের সেঞ্চুরি, ১১ নম্বরে নেমে অন্যজনের হাফ-সেঞ্চুরি, দুই হেনরির তান্ডবে ইনিংস হারের ভ্রূকুটি দক্ষিণ আফ্রিকা শিবিরে
দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই প্রোটিয়া শিবিরে ধাক্কা কিউয়ি বোলারদের। ছবি- আইসিসি।

একজনের সেঞ্চুরি, ১১ নম্বরে নেমে অন্যজনের হাফ-সেঞ্চুরি, দুই হেনরির তান্ডবে ইনিংস হারের ভ্রূকুটি দক্ষিণ আফ্রিকা শিবিরে

  • দ্বিতীয় দিনের শেষেই টেস্ট জয়ের গন্ধ পাচ্ছে নিউজিল্যান্ড।

ক্রাইস্টচার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম টেস্টের শুরু থেকেই নিউজিল্যান্ডের দাপট বজায় ছিল। দ্বিতীয় দিনের শেষে নিজেদের অবস্থান আরও মজবুত করে কিউয়িরা। কার্যত দ্বিতীয় দিনের শেষেই টেস্ট জয়ের গন্ধ পাচ্ছে নিউজিল্যান্ড শিবির। অন্যদিকে ইনিংস হারের লজ্জা নিয়ে মাঠ ছাড়ার আশঙ্কা চেপে বসেছে প্রোটিয়াদের ঘাড়ে।

টেস্টের প্রথম দিনেই ম্যাট হেনরির ৭ উইকেটের সুবাদে দক্ষিণ আফ্রিকাকে প্রথম ইনিংসে মাত্র ৯৫ রান অল-আউট করে দেয় নিউজিল্যান্ড। জবাবে ব্যাট করতে নেমে কিউয়িরা প্রথম দিনের শেষে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ১১৬ রান তোলে। সুতরাং প্রথম দিনেই নিউজিল্যান্ড প্রথম ইনিংসের নিরিখে এগিয়ে যায় ২১ রানে।

তার পর থেকে খেলতে নেমে দ্বিতীয় দিনে নিউজিল্যান্ড তাদের প্রথম ইনিংস শেষ করে ৪৮২ রানে। অনবদ্য শতরান করেন হেনরি নিকোলস। তিনি ১০৫ রান করে আউট হন। নিশ্চিত শতরান হাতছাড়া করেন টম ব্লান্ডেল। তিনি ব্যক্তিগত ৯৬ রানের মাথায় আউট হয়ে বসেন। হাফ-সেঞ্চুরির দোরগোড়া থেকে ফিরতে হয় নেইল ওয়াগনারকে। তিনি ৪৯ রান করে সাজঘরে ফেরেন।

প্রথম ইনিংসে বল হাতে আগুন ঝরানো ম্যাট হেনরি ১১ নম্বরে ব্যাট করতে নেমে ৫৮ রান করে অপরাজিত থাকেন। সুতরাং, প্রথম ইনিংসের নিরিখে ৩৮৭ রানের বিশাল লিড পেয়ে যায় নিউজিল্যান্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে অলিভিয়ের ৩টি এবং রাবাদা, জানসেন ও মার্করাম ২টি করে উইকেট দখল করেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা ফের প্রাথমিক ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে। তারা দ্বিতীয় দিনের শেষে ৩ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৩৪ রান সংগ্রহ করেছে। সুতরাং, প্রথম ইনিংসের খামতি মেটাতে তাদের এখনও দরকার ৩৫৩ রান। এখন দেখার যে ক্রাইস্টচার্চ টেস্টে ইনিংস হারের লজ্জা এড়াতে পারে কিনা দক্ষিণ আফ্রিকা।

বন্ধ করুন