বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > সাতারা থেকে টোকিও গেমস, আর্চার প্রবীণ যাদবের রুপকথার উত্থান
প্রবীণ যাদব।

সাতারা থেকে টোকিও গেমস, আর্চার প্রবীণ যাদবের রুপকথার উত্থান

  •  প্রবীণ যাদবের আর্চারিতে প্রবেশ হঠাৎ করেই। আর সেই প্রবীণকে ঘিরেই ইতিমধ্যেই পদকের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে ভারত।

শুভব্রত মুখার্জি

টোকিও অলিম্পিক্সে ভারতীয় ক্রীড়াবিদরা কতটা সফল হবেন, কতগুলো পদক পাবেন, কতগুলো সোনা জয় সম্ভব হবে তা জানতে আমাদের আর কয়েকটা দিন অপেক্ষা করতেই হবে তা বলাই বাহুল্য। তবে অলিম্পিক্স গেমসের মোটো যদি মাথায় রাখতে হয় তাহলে একথা নির্দ্বিধায় বলা যায় পদক জয় বা পরাজয় অনেক পরের ব্যাপার সেখানে কোয়ালিফাই করাটাই একটা বিরাট অ্যাচিভমেন্ট। ঠিক এই কথাগুলোই প্রযোজ্য টোকিও অলিম্পিক্স গেমসে ভারতকে প্রতিনিধিত্ব করতে চলা আর্চার প্রবীন যাদবের জীবনে। সাতারা নামক এক অখ্যাত ভারতীয় গ্রামের গলিপথ থেকে উঠে এসে টোকিও গেমসে পৌছানো তার কাছে রুপকথার উত্থান ছাড়া আর কিছুই নয়।

প্রবীণের আর্চারিতে প্রবেশ হঠাৎ করেই। আহমেদনগরের ক্রিদা প্রবোধিনী হোস্টেল থেকেই শুরু হয় সেই পথচলা। সেখানে ট্রায়ালে ১০ টা বলের মধ্যে ১০ টাকেই তিনি রিংয়ে পরাতে সক্ষম হয়েছিলেন ১০ মিটার দূরত্ব থেকে। এই ঘটনার পর থেকে তাকে আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। ছোটবেলায় তার হাতে দুটিই বিকল্প ছিল হয় বাবার সাথে দৈনিক শ্রমিক হিসেবে কাজ করা অথবা দৌড়বিদ হওয়া। তিনি হয়ত স্বপ্নে ও ভাবেননি ভারতকে অলিম্পিকে প্রতিনিধিত্ব করবেন তাও আবার তার কাছে সম্পূর্ণ এক 'অজানা' খেলাতে।

মহারাষ্ট্রের সাতারার এই যুবককে ঘিরে ইতিমধ্যেই পদকের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছে ভারত। অত্যন্ত কষ্টের মধ্যে দিয়ে উঠে এসে প্রবীণ আজ এই জায়গায় পৌছাতে সক্ষম হয়েছেন। ক্লাস সেভেনে পড়াশুনা ছেড়ে বাবার সাথে নির্মানশিল্পে শ্রমিক হিসেবে যোগ দিতে হয়েছিল তাকে। যাদবের সারাডের জেলা পরিষদের স্কুলের শিক্ষক বিকাশ ভুজবল প্রথম প্রবীনের প্রতিভার খোজ পান। তিনি তাকে দৌড়বিদ হওয়ার প্রস্তাব দেন যা তাকে একটা সুন্দর ভবিষ্যৎ উপহার দিতে পারে। সেই সময় ৪০০ ও ৮০০ মিটার দৌড় শুরু করে প্রবীন। তারপরেই হঠাৎ তার জীবনে আর্চারিতে প্রবেশের সুযোগ এসে যায়

এর পরেই পুনের আর্মি ইনস্টিটিউট তাকে আর্চারিতে খেলার সুযোগ করে দেয়। ২০১৬ সালে ব্যাঙ্ককে এশিয়া কাপে স্টেজ থ্রিতে দলগত ব্রোন্জ্ঞ জয় তার প্রথম আন্তর্জাতিক পদক। ২০১৯ বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে অতনু দাস এবং তরুনদীপ রাইয়ের সাথে একসাথেই টোকিও অলিম্পিক্স গেমসের যোগ্যতা অর্জন করেন তিনি।

বন্ধ করুন