বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > টোকিও থেকে খালি হাতে দেশে ফেরার পথে আবেগঘন বার্তা দিয়ে কামব্যাকের অঙ্গীকার মনু ভাকেরের
মনু ভাকের (ছবি:রয়টার্স) (REUTERS)
মনু ভাকের (ছবি:রয়টার্স) (REUTERS)

টোকিও থেকে খালি হাতে দেশে ফেরার পথে আবেগঘন বার্তা দিয়ে কামব্যাকের অঙ্গীকার মনু ভাকেরের

  • দেশের বিমান ধরার আগে একটি ছবি পোস্ট করে এক আবেগে ভরা পোস্ট করলেন। প্যারিসে দেশকে সম্মানিত করার ব্যাপারে অঙ্গীকার নিলেন মনু ভাকের।

শুভব্রত মুখার্জি: টোকিও গেমস থেকে ভারতীয় স্কোয়াডের ৮-১০ টি পদকের আশা করেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। তার মধ্যে ভারতের শুটিং স্কোয়াড বেশ ভাল কিছু করবে এই আশা ছিল সকলের। সৌরভ চৌধুরী,মনু ভাকেরদের উপর মেডেল জয়ের প্রত্যাশা ছিল সবথেকে বেশি। তবে ১৯ বছর বয়সী দুই তরুণ এবং তরুণী সেই প্রত্যাশার চাপ কাটিয়ে ভারতের হয়ে টোকিও গেমসে মেডেল আনতে সমর্থ হননি। তবে তাদের যেরকম অল্প বয়স তাতে আর তিন বছর পরে প্যারিসেও তাদের সামনে পদক জেতার সুযোগ থাকছে। আর সেই উদ্দেশ্যেই টোকিও থেকে দেশের বিমান ধরার সময়ের একটি ছবি পোস্ট করে এক আবেগে ভরা পোস্ট করলেন। প্যারিসে দেশকে সম্মানিত করার ব্যাপারে অঙ্গীকার নিলেন মনু ভাকের।

বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে একাধিক পদক জিতে টোকিওতে পা রেখেছিলেন মনু। ফলে তাঁকে ঘিরে প্রত্যাশার পারদ ছিল গগনচুম্বী। টোকিও গেমসে শুটিংয়ের তিনটি বিভাগে কোয়ালিফাই করেছিলেন মনু ভাকের। মহিলা ১০ মিটার এয়ার পিস্তল, মিক্সড ১০ মিটার এয়ার পিস্তল এবং মহিলাদের ২৫ মিকার পিস্তলে যোগ্যতা অর্জন করেছিলেন। ইভেন্টে তার শুরুটা একেবারেই মনমত হয়নি। মহিলাদের ১০ মিটার এয়ার পিস্তলে কোয়ালিফিকেশন রাউন্ডে তার পিস্তলের ইলেকট্রনিক ট্রিগার হঠাৎ করেই বিগড়ে যায়। কোচ রনক পন্ডিতের সহায়তায় সমস্যা সমাধান করে ফিরে এলেও ততক্ষণে তার মূল্যবান ১৪ মিনিট নষ্ট হয়ে যায়। সেখান থেকে তিনি আর কামব্যাক করতে পারেননি। এই ঘটনার প্রভাব সম্ভবত পড়েছিল তার পরবর্তী ইভেন্টগুলোতেও। গেমস শুরুর আগেই তার এবং তার প্রাক্তন কোচ যশপাল রানার সম্পর্কের টানাপোড়েন তার পারফরম্যান্সে প্রভাব ফেলেছিল বলে অনেকের ধারণা।

মনু ভাকের তার অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডেলে ন্যাশনাল রাইফেল অ্যাসোসিয়েশানের প্রধান রানিন্দর সিং, কোচ রনক পন্ডিত, সাই,ভারতের অলিম্পিক্স গোল্ড কোয়েস্ট প্রোজেক্ট, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর এবং কিরেণ রিজিজুকে ট্যাগ করে লেখেন ' সতীর্থ ভারতীয়রা আমাকে সাহায্য করার জন্য এবং আমার পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ। প্রতি মূহুর্তে আপনাদের এই সার্পোট পেয়ে আমি অভিভূত। আমি আমার সেরাটা দিতে চেষ্টা করেছি। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে আমার পক্ষে যা করা সম্ভব ছিল করেছি। ২০২৪ প্যারিস অলিম্পিক্সের জন্য অধীর অপেক্ষায় রইলাম।'

বন্ধ করুন