বাংলা নিউজ > ময়দান > টোকিও অলিম্পিক্স > বিংজিয়াওকে স্ট্রেট গেমে উড়িয়ে ব্যাডমিন্টনের ওমেনস সিঙ্গলসে ব্রোঞ্জ জয় সিন্ধুর
পিভি সিন্ধু। ছবি- রয়টার্স।
পিভি সিন্ধু। ছবি- রয়টার্স।

বিংজিয়াওকে স্ট্রেট গেমে উড়িয়ে ব্যাডমিন্টনের ওমেনস সিঙ্গলসে ব্রোঞ্জ জয় সিন্ধুর

  • দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে জোড়া অলিম্পিক্স পদক জিতলেন সিন্ধু।

রিও অলিম্পিক্সে রুপোর পদক জিতলেও টোকিওয় ফাইনালে উঠতে পারেননি পিভি সিন্ধু। ফলে এবার ব্যাডমিন্টনের ওমেনস সিঙ্গলসে সোনা বা রুপো জয়ের সম্ভাবনা আগেই শেষ হয়ে যায় পুসারলার। যদিও ব্রোঞ্জ জয়ের সুযোগটাকে কাজে লাগাতে মরিয়া ছিলেন ভারতীয় তারকা।

ব্রোঞ্জ মেডেল ম্যাচে সিন্ধুর প্রতিপক্ষ ছিলেন চিনের হি বিংজিয়াও, যিনি টুর্নামেন্টে অষ্টম বাছাইয়ের মর্যাদা পেয়েছেন। সিন্ধু টোকিওয় ষষ্ঠ বাছাই হিসেবে কোর্টে নামেন। ব্রোঞ্জ মেডেল ম্যাচে ৫৩ মিনিটের লড়াইয়ে তিনি ২১-১৩, ২১-১৫ স্ট্রেট গেমে পরাজিত করেন বিংজিয়াওকে এবং ব্রোঞ্জ পদক গলায় ঝোলান।

(টোকিও অলিম্পিক্স ২০২০-র যাবতীয় খবর, আপডেটের জন্য চোখ রাখুন হিন্দুস্তান টাইমস বাংলায়)

সুশীল কুমারের পর দ্বিতীয় ভারতীয় হিসেবে দু'টি অলিম্পক্স পদক গলায় ঝোলালেন পুসারলা। সিন্ধুই প্রথম ভারতীয় মহিলা, যাঁর ঝুলিতে জোড়া অলিম্পিক মেডেল এল।

প্রথম গেম:- সার্ভিস থেকে প্রথম পয়েন্ট সংগ্রহ করেন সিন্ধু। পরপর চারটি পয়েন্ট সংগ্রহ করে শুরুতেই ৪-০ এগিয়ে যান ভারতীয় তারকা। পরে ঘুরে দাঁড়িয়ে বিংজিয়াও একসময় ৫-৬ ব্যবধানে লিড নেন। সিন্ধু অবশ্য ম্যাচের রাশ নিজের হাত থেকে বেরিয়ে যেতে দেননি। তিনি মিড গেম ব্রেকে ১১-৮ ব্যবধানে এগিয়ে থাকেন। শেষমেশ ২৩ মিনিটের লড়াইয়ে প্রথম গেম ২১-১৩ ব্যবধানে জিতে নেন ভারতীয় শাটলার।

দ্বিতীয় গেম:- শুরু থেকেই তুল্যমূল্য লড়াই চলে। ১৬ মিনিট লড়াই শেষে সিন্ধু এগিয়ে যান ১১-৮ পয়েন্টে। সেখান থেকে পরপর তিনটি পয়েন্ট জিতে ১১-১১ সমতায় ফেরেন বিংজিয়াও। ফের ম্যাচে দাপট দেখান সিন্ধু। ৪টি পয়েন্ট জিতে পিভি এগিয়ে যান ১৫-১১ পয়েন্টে। মাঝে আরও চারটি পয়েন্ট সংগ্রহ করেন চিনা শাটলার। তবে শেষবেলার অপ্রতিরোধ্য দেখায় পুসরলাকে। ২৯ মিনিটের লড়াইয়ে ২১-১৫ ব্যবধানে দ্বিতীয় গেম জিতে নেন সিন্ধু।

বন্ধ করুন